Main Menu

সাংসদ মোকতাদির-বাপ্পির অনুষ্ঠানে সেই বোস্টার মানিক, জেলাজুড়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা

+100%-

কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক নেতা রুহুল আলম আল মাহবুব ওরফে বোস্টার মানিককে সঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে বৃহস্পতিবার দুই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য র.আ.ম উবায়দুল মোকাদির চৌধুরী ও সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. ফজিলাতুন-নেছা বাপ্পিসহ ক্ষমতাসীন দলের নেতারা।

সরকার দলীয় সাংসদদের সাথে সাবেক ছাত্রদল নেতাকে দেখে হতবাক দলীয় নেতাকর্মীরা। বিষয়টি নিয়ে এখন জেলাজুড়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা_ খবর জাগো নিউজের।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বৃহস্পতিবার আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ‘স্বপ্নযাত্রা’ নামে একটি সামাজিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

ওই অনুষ্ঠানে সাংসদ ফজিলাতুন-নেছা বাপ্পিসহ সরকারদলীয় নেতাদের সাথে ছিলেন সাবেক ছাত্রদল নেতা বোস্টার মানিকও। পরে ইলেক্ট্রনিক পণ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান স্যামসাং-এর কর্মকর্তা বোস্টার মানিকের সঙ্গে আশুগঞ্জ বাজারে একটি শো-রুমও উদ্বোধন করেন সাংসদ বাপ্পি। স্যামসাং’র ওই শো-রুমটির মালিক স্থানীয় বিএনপি নেতা মাসুদ রানা।

স্বপ্নযাত্রার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাংসদ র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। আশুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আমিরুল কায়সারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, ফেয়ার ইলেক্ট্রনিক্সের চেয়ারম্যান ও সাবেক ছাত্রদল নেতা রুহুল আলম আল মাহবুব মানিক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক হাজি মো. ছফিউল্লাহ মিয়া, যুগ্ম-আহ্বায়ক আবু নাছের আহমেদ, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রেহানা বেগম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক শাহীন শিকদার প্রমুখ।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান আনসারী বলেন , প্রভাবশালী দুইজন সংসদ সদস্যের পাশে ছাত্রদলের সাবেক বিতর্কিত নেতা বোস্টার মানিকের অবস্থান উদ্বেগজনক। মানিক ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে যুক্ত থাকাকালীন সময়ে ছাত্রলীগের বহু নেতাকর্মীর ওপর হামলা করেছে।

আশুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. হানিফ মুন্সি বলেন, আমরা সংসদ সদস্যদের আগমনকে স্বাগত জানাই। ছাত্রদলের সাবেক নেতা বোস্টার মানিক তাদের সঙ্গে অনুষ্ঠানে আসাতে সবাই সমালোচনা করছে।

এ ব্যাপারে সাংসদ ফজিলাতুন-নেছা বাপ্পি বলেন, ফেয়ার গ্রুপ ওই অনুষ্ঠানে সহায়তা করেছে। এখানে কোনো বিএনপি নেতা ছিলেন না। বিষয়টিকে সেভাবে দেখা ঠিক নয়।

উল্লেখ্য, বোস্টার মানিকের বিরুদ্ধে ২০০৪ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীকে জেতানোর জন্য ভোটকেন্দ্র দখলের নেতৃত্ব দেয়ার অভিযোগ রয়েছে। সেই সঙ্গে বোমা ফাটিয়ে কেন্দ্র দখল করে ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টির পাশাপাশি ছাত্রদলের ওই নেতা সেদিন বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র থেকে জেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতাদেরকেও বের করে দিয়েছিলেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares