Main Menu

মন্ত্রী তো হাত চুড়ি পড়ে বসে থাকবে না_ছায়েদুল হক (ভিডিও)

+100%-

হরতালের মধ্যেই রোববার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে গিয়ে নির্ধারিত অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী ছায়েদুল হক।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত সুধি সমাবেশের প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বিজয়নগরে যাওয়ার ঘোষণা দেন।

হরতালের প্রসঙ্গ টেনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীকে ইঙ্গিত করে মন্ত্রী বলেন, উনার (মোকতাদির চৌধুরী) বোঝা উচিত আমি পারিবারিক বা ব্যক্তিগত কোনো কাজ করছি না, মানুষকে সেবা দেয়ার জন্য বিল্ডিং (প্রাণিসম্পদ হাসপাতাল) উদ্বোধন করবো। আপনি বাধা দেবেন আর আমি মন্ত্রী তো হাত চুড়ি পড়ে বসে থাকবে না।

তিনি বলেন, নাসিরনগরকে বিশ্বসংবাদে পরিণত করার নায়ক মোকতাদির চৌধুরী। হিন্দু পল্লীতে হামলার দায় মোকতাদির চৌধুরীকেই নিতে হবে।

আশুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক হানিফ মুন্সির সভাপতিত্বে সুধি সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের সংসদ সদস্য অাড. জিয়াউল হক মৃধা, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল আলম, জেলা আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি হেলাল উদ্দিন, সহ-সভাপতি তাজ মোহাম্মদ ইয়াছিন প্রমুখ।

বিশেষ অতিথিরা তাদের বক্তব্যে সংসদ সদস্য মোকতাদির চৌধুরী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল-মামুন সরকারের নানা কর্মকাণ্ডের ব্যাপক সমালোচনা করেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে বিজয়নগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট তানভীর ভূঁইয়া ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া মন্ত্রী ছায়েদুল হকের রোববারের অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা দেন। পরে বিকেলেই উপজেলা আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসহযোগী সংগঠন রোববার বিজয়নগরে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ঘোষণা দেন।

উল্লেখ্য, রোববার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলা প্রাণিসম্পদ হাসপাতাল উদ্বোধন ও সুধি সমাবেশে যোগ দেয়ার কথা রয়েছে মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী ছায়েদুল হকের।

 






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares