Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ কলার ছড়ির পক্ষে গণজোয়ার

+100%-

মোঃ তারিকুল ইসলাম সেলিম।। ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মঈনউদ্দিন মঈনের কলার ছড়ি প্রতীকের পক্ষে গণজোয়ার উঠেছে। একাদশ জাতীয় সংসদ নিবার্চনে বিভিন্ন সংস্থার ভোটের হিসাব-নিকাশে সারা দেশে নৌকা, ধানের শীষ ও লাঙলের মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বীতা হবে। কিন্তু এ আসনে ব্যাতিক্রম মাত্রা এনে দিয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মঈনউদ্দিন মঈন। এখানে কলার ছড়ির সাথে অন্যদের প্রতিদ্বন্দ্বিতার হিসাব করতে হচ্ছে । একজন ভালো মানুষ হিসেবে ব্যক্তি মঈন দলমতের উর্ধ্বে সবার কাছেই সমান গ্রহনযোগ্য ও জনপ্রিয়। সাধারণ মানুষ এ কারণে কলার ছড়ি মার্কাকে ভোটের হিসাব-নিকাশে এগিয়ে দেখছে ।

মো. মঈনউদ্দিন মঈনের প্রতি মানুষের ভালবাসা, আবেগ, অনুভূতি এতোটাই প্রবল যে দলের মনোনয়ন না পেয়েও তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের চাপ সামলাতে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। আওয়ামী লীগ থেকে তিনি সহ ৬ জন প্রার্থী স্বতন্ত্র মনোনয়নপত্র জমা দেন। সাধারণ মানুষের পছন্দের প্রার্থী মো. মঈনউদ্দিন ছাড়া অন্য ৫ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়। এ খবরে পাল্টে যায় ভোটের মাঠে দৃশ্যপট। এতে সাধরণ মানুষও আনন্দিত। বহুদিনের দ্বির্ধা বিভক্ত তৃণমুল আওয়ামী লীগের মধ্যে ঐক্যের সুর ওঠে। মো. মঈনউদ্দিন মঈন যেখানেই যাচ্ছে সেখানেই মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতিতে তা জনসভায় রূপান্তর হচ্ছে। প্রচারণা গণমিশিল, পথসভা জনসভায় রূপান্তরিত হচ্ছে।

আওয়ামী লীগের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে আসনটি পরিচিত আশুগঞ্জ উপজেলা থেকে এবারই প্রথম একজন কৃতি সন্তান হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগে কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক মো. মঈনউদ্দিন মঈন সংসদ সদস্যপদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া সরাইল-আশুগঞ্জ আসনটি ১৯৭৩ সালের পর আওয়ামী লীগের হাত ছাড়া হয়। এবার মঈনকে দিয়ে আসনটি পূর্নউদ্ধারের চমৎকার সুযোগ তৈরি হয়েছে।

কলার ছড়ি প্রতীককে বিজয়ী করতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা মঈনউদ্দিনের পক্ষে একাট্টা অবস্থান নিয়েছে।

এদিকে মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াতে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে মহাজোটের নামে চালানোর দায়ে বর্তমান সংসদ জিয়াউল হক মৃধা কে জরিমানা করেছে ভ্রম্যমান আদালত। গত সোমবার বিকালে জেলার আশুগঞ্জ উপজেলা ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা হয়। ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করে উপজেলার সহকারি কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্টেট এটিএম মোর্শেদ। তিনি জানান জেলার রিটার্নিং কর্মকতার লিখিত চিঠি পেয়ে সরেজমিনে সিংহ প্রতীকে জিয়াউল হক মৃধার পোস্টারে মহাজোট লেখা ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা ছবি ব্যবহারের প্রমাণ সাপক্ষে ৩০,০০০ (ত্রিশ হাজার) টাকা জরিমানা করে বিভিন্ন স্থানে পোস্টা, ব্যানার ছাঁটানোর নির্দেশ দেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares