Main Menu

আশুগঞ্জে আরাফাত ইমনের দায়িত্ব নিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বশির উদ্দিন॥

+100%-

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ অপহরণের পর নিহত শিশু রিফাতের পরিবারের পাশে দাড়িয়েছেন আশুগঞ্জের খড়িয়ালা গ্রামের কৃতি সন্তান সদ্য পদন্নোতি প্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার সহকারী কমিশনার মোহাম্মদ বশির উদ্দিন। নিহত শিশু রিফাতের বড় ভাই আরাফাত ইমনের (১১) লেখা পড়ার জন্য সার্বিক খরচ ও পড়াশুনা শেষে যোগ্যতা অনুযায়ী চাকুরী দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এ ছাড়া রিফাতের পরিবারকে ৫০হাজার টাকা দেয়ার ঘোষনা দিয়েছেন। গত ১৫ জানুয়ারি নিখোঁজের ১০ দিন পর উপজেলার খড়িয়ালা গ্রামের মনির মেম্বারের বাড়ির বাথরুমের ফলছাদ থেকে হাত-পা বাঁধা ও বস্তাবন্দি অবস্থায় মো. রিফাত (৭) নামে এক শিশুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
শুক্রবার বিকেলে খড়িয়ালা গ্রামের শিশু রিফাতের অকাল মৃত্যুতে শোকসভায় ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। নিহত শিশু রিফাতের বড় ভাই আরাফাত ইমন খড়িয়ালা পশ্চিম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণী ছাত্র। আরাফাত ইমন পিতা বাহার ও মাতা সাহানা বেগমের বড় ছেলে। সে তার পরিবারে সাথে তার নানী বাড়ি খড়িয়ালা গ্রামে বসবাস করে। তার পিতার বাড়ি সরাইল উপজেলা নওগাঁ ইউনিয়ন আগিতারা গ্রামে। আরাফাত ইমন বড় হয়ে পুলিশ হতে চান। বশির উদ্দিন আরাফাত ইমনের পড়াশুনার সার্বিক খরচ বহন করবে এরকম আশ্বাসে তার বাবা বাহার মিয়া বলেন, আমরা গরীব মানুষ বশির ভাই এমন উদ্যোগ নিয়েছে এতে আমরা খুবই আনন্দিত। বশির ভাইয়ের কাছে আমরা কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করা ছাড়া আর কিছু বলার নেই।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares