Main Menu

ফলোআপ: নাসিরনগরে ৪৩জন রোগীকে সার্জিক্যাল ডাক্তার ছাড়া বন্ধ্যাকরন

+100%-

নাসিরনগরঃ ২৬ও২৮অক্টোবর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে বিজ্ঞ ও সার্জিক্যাল ডাক্তার ব্যতীত টেকনিশিয়ান দ্বারা  ৪৩ জন পুরুষ ও মহিলাকে অপারেশনের মাধ্যমে ব›ন্ধ্যাকরন সম্পন্ন করা  হয়েছে বলে জানা যায় । এর মাঝে ফুলপুর গ্রামের জ্যো¯œা বেগম( ৩০)র অবস্থা গুরুতর বলে জানাগেছে ।উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিস সুত্রে জানা যায় ,২৬ অক্টোবর ৫ জন পুরুষ ও ৭ জন মহিলা অপরদিকে ২৮ অক্টোবর ১০জন পুরুষ ও ২১জন মহিলা। দুই দিনে মোট ৪৩ জন পুরুষ মহিলাকে বন্ধ্যাকরন করা হয়েছে ।ওই সময়ে কোন বিজ্ঞ সার্জিক্যাল ডাক্তার এমনকি দায়িত্ব প্রাপ্ত মেডিকেল অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন ও উপস্থিত ছিলেন  না।অনভিজ্ঞ টেকনিশিয়ান  দ্বারা অপারেশন সম্পন্ন করা হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এতে সদর ইউনিয়নের ফুলপুর গ্রামের লেদু মিয়া চৌধুরীর  স্ত্রী মোছাঃ জ্যো¯œা বেগম (৩০) ইনফেকশন জনিত কারনে নাসিরনগর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে ।এ বিষয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত মেডিকেল অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেনের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন  এব্যাপারে আপনাদের জানার কোন প্রয়োজন নেই ।দেশের অবস্থা খারাপ সুতরাং দেশ নিয়ে চিন্তাকরুন।ডাঃ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেনের  সাংবাদিকদের সাথে  খারাপ আচরনের কথা তার অফিস সহকারী মোঃ মোশারফ হোসেন ও স্বীকার করেছেন।তিনি বলেন স্যার আমাকে ফোন করে এ বিষয়টি জানিয়েছেন ।মোশারফ জানান ,এ সময়ে স্যার নাকি অন্যমনস্ক ছিলেন । এ বিষয়ে পরিবার পরির্কপনা বিভাগের উপপরিচালক অরবিন্দু দত্তের সাথে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে ,তিনি বলেন ২৬ তারিখে আমি নিজেই ছিলাম। ২৮ তারিখের বিষয়ে তিনি কোন  কথা না বলে এড়িয়ে যান ।তিনি বলেন যে কোন রোগীর, যে কোন সমস্যা হতেই পারে । কোন সমস্যা হলে যেহেতু সরকারী প্রোগ্রাম . সরকারী ভাবেই তার চিকিৎসা করা হবে । জানা গেছে ডাঃ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেনের কর্মস্থল নাসিরনগরে হলেও তিনি বেশীরভাগ সম্য়ই থাকেন ঢাকা । বিশেষ  প্রয়োজনে মাসে দুই এক দিন নাসিরনগরে আসেন।সরকার যেখানে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রনে বছরে কোটি কোটি টাকা ব্যয় করছে । সেখানে এ ধরনের  ডাক্তারদের কর্তব্যে  অবহেলার কারণে, সাধারন মানুষ বন্ধ্যাকরনে প্রতি উৎসাহিত না হয়ে নিরুৎসাহিত হলে সরকারের এই মহৎ উদ্যোগ ভেস্থে যাওয়ার আশংকা করছে এলাকার বিজ্ঞ মহল ।এ সমস্ত অফিসারদের কর্তব্যে ুঅবহেলার কারনে  সরকারের কোটি কোটি টাকা  ক্ষতির ও সম্ভাবনা রয়েছে ।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares