Main Menu

নাসিরনগরে গ্রাম্য শালিশে মাথা ন্যাড়া, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

+100%-


এম পি র ভাতিজার দম্ভোক্তি, এটা এম পির গ্রাম, এখানে কোন আইন লাগেনা

নাসিরনগর প্রতিনিধিঃ নাসিরনগরে নিজের মেয়ের সাথে অনৈতিক কর্মকান্ডের কারনে মুফতির ফতোয়ার ভিত্তিতে গ্র্রাম্য শালীশে পিতার মাথা ন্যাড়া ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করার খবর পাওয়া গেছে । ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ব্রাহ্মনবাড়িয় জেলার নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের পূর্বভাগ গ্রামের হরেছ আলী সর্দারের বাড়িতে । এই বিষয়ে জানতে চাইলে এম পির ভাতিজা মোঃ আলী আজম দম্ভোক্তি করে বলেন, এটা এম পির গ্রাম, এখানে কোন আইন লাগেনা, আমরা যা করি তাই আইন। ঘটনার বিবরনে জানাগেছে গ্রামের মৃত  করুম হোসেনের ছেলে মোঃ ফরিদ মিয়ার (৫০) মেয়ে ঢাকা থেকে বাড়িতে আসে । রাতে ঘুমিয়ে পড়লে ফরিদ মিয়া তার কিশোরী কন্যা ১৭ কে  ইচ্ছার বিরোদ্বে ধর্ষনের মত জগন্য কাজ করতে গেলে মেয়ে তাহা লোকের কাছে বলে দেয় । পরে তা নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে হরেছ আলী সর্দারের বাড়িতে হরেছ আলীর সভাপতিত্বে এক শালীশ বৈঠক বসে । বৈঠকে উপস্থিত শালীশ কারকরা মুফতি এনামুল হকের ফতোয়ার ভিত্তিতে বাবা মোঃ ফরিদ মিয়ার মাথা ন্যাড়া করে ও মেয়ের ভবিষ্যতের জন্য ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে । শালীশে এমপির ভাগিনা বর্তমান মেম্বার মোঃ জানু মিয়া, ভাতিজা মোঃ  আলী আজম সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন । এ বিষয়ে মুফতি এনামুল হকের সাথে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে জানতে চাইলে তিনি জানান আমি সর্দারদের চাপে পরে এমন ফতোয়া দিতে হয়েছে। এ বিষয়ে পুর্বভাগ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ আবু সায়েমের সাথে যোগাযোগ করে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি ঢাকাতে আছি এ বিষয়ে আমি শুনেছি । তবে ফরিদ মিয়া একজন খারাপ লোক । শুনেছি সে মাঝে মাঝে  বিভিন্ন জায়গা থেকে মেয়ে এনে  ব্যবসা করে । তার এ কাজে গ্রামের কয়েকজন টাউট ভাটপার সহযোগিতা করে ও বন্টন নিয়ে থাকে । ঘটনা সর্ম্পকে জানতে পুর্বভাগ গেলে, সাংবাদিকের কথা শুনে ফরিদ মিয়া বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় । পুর্বভাগ বাজারের ডাঃ জমির হোসেন, এমপির চাচাতো ভাই মোঃ আব্দুল হক, হাজী মোঃ করিম হোসেন, হরেছআলী সর্দার  ঘটনার সত্যতা  স্বীকার করে এবং এমন  ন্যক্কাড় জনক ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন । এ বিষয়ে নাসির নগর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা সামিহা ফেরদৌসির সাথে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেননি বলে জানান । তবে তিনি বলেন এ বিষয়ে ব্রাহ্মনবাড়িয়াথেকে একজন সাংবাদিক আমাকে ফোন করেছিল । এ বিষয়ে নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আব্দুল কাদেরের কাছে জানতে চাইলে তিনি কিছু জানেন না, তবে এ বিষয়ে দ্রুত খুজ খবর নিবে বলে জানান । জানা  যায় নাসির নগর ১ আসনের এম পি এডভোকেট ছায়েদুল হক একজন সৎ যোগ্য ও প্রবীনরাজনৈতিক ব্যক্তি । নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাদিক ব্যক্তি এ প্রতিনিধিকে জানান যে, আলী আজম একজন দুশ্চরিত্রবান ব্যক্তি । সে এলাকার সমস্ত অপরাধমুলক কাজের  নাটের গুরু। সে এম পির নাম ভাংগিয়ে বিভিন্ন জায়গাবাণিজ্য করার চেষ্টা করে । অথচ এম পির সাথে তার বৈরী সর্ম্পক তার কুকর্মের কারনে  । সে বিভিন্ন বিচার শালীশে ভাড়ায় যায় । তারা জানান কিছু দিন  আগেও আলী আজম পুর্বভাগ রাস্তার সরকারী গাছ কেটে চুরি করে বিক্রি করে দেয় । কিছু দিন পুর্বে এক প্রকল্পের চাউল চুরি করে বিক্রি করে দেন । এ সমস্ত কারনে এলাকার কেউ তাকে দেকাতে পারেনা ।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares