Main Menu

নাসিরনগরে ভিজিএফের চাল চুরি তদন্তে প্রমাণিত:: কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান

+100%-

vgfমোঃ আব্দুল হান্নান,নাসিরনগর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া, জেলার নাসিরনগর উপজেলার ৬নং বুড়িশ্বর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব নারায়ন চন্দ্র বিশ্বাস ও চেয়ারম্যান এটিএম মোজাম্মেল হক সরকার (মুকুল) মিলে হতদরিদ্রদের নামে সরকারী বরাদ্দ দেওয়া ভিজিএফের চাউল চুরি করে কালো বাজারে বিক্রির অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ প্রায় তদন্ত কমিটি। পরে ওই কমিটি তিন দিনের ভিতর কারণ দর্শনোর নোটিশ প্রদান করে তাদের।

জানা গেছে পবিত্র ঈদুল-ফিতর উপলক্ষে বুড়িশ্বর ইউনিয়নের হতদরিদ্রদের মাঝে মাথা পিছু ২০ কেজি করে ৩৬ মেঃটন,৫০০কেজি ভিজিএফের চাউল বিতরণের জন্য বরাদ্দ দেয় সরকার। কিন্তু অত্র ইউনিয়ন পরিষদের সচিব নারায়ন চন্দ্র বিশ্বাস ও চেয়ারম্যান এটিএম মোজাম্মেল হক সরকার (মুকুল) মিলে ট্যাক অফিসারকে না জানিয়ে প্রায় ১৫ মেঃ টন চাউল চুরি করে কালো বাজারে বিক্রি করে দেয়। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী মোয়াজ্জম আহমদ ও মাননীয় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী এডঃ সায়েদুল হককে অবগত করা হয়। তাদের নির্দেশে শুরু হয় তদন্ত। ট্যাক অফিসার মোঃ শাহজাহান ভূইয়া জানান তদন্তে তিনি ১১২ বস্তা চাউল অনিয়ম পায়। কিন্তু জনসাধারনের মতে চুরির চাউলের পরিমাণ প্রায় ১৫ মেঃটন।

তদন্ত শেষে সত্যতা প্রমাণিত হওয়ায় ১১ আগষ্ট ২০১৬ তারিখে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয়ের কার্যালয়ের ৫২০নং স্মারখে তিন কার্য দিবসের মাঝে কারণ দর্শনোর নোটিশ প্রেরণ করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চৌধুরী মোয়াজ্জম আহমদ সরকারী ভিজিএফের চাউল চুরি ও নোটিশ প্রদানের সত্যতা স্বীকার করেন। এখনো নোটিশের কোন সুনির্দিষ্ট জবাব পাওয়া যায় নি বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয়ের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে। এ বিষয়ে জানতে চেয়ে সচিব নারায়ন চন্দ্র বিশ্বাস ও চেয়ারম্যান এটিএম মোজাম্মেল হক সরকার (মুকুল) এর মোবাইলে বার বার ফোন দিলে ও তারা কেউ ফোন রিসিভ করেনি।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares