Main Menu

সততা

নাসিরনগরে দুটি পাসপোর্টসহ অর্ধলক্ষাধিক টাকা ফেরত দিলেন সিএনজি চালক

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন উপজেলায় সিএনজি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন মো. ইমন মিয়া। সরাইল উপজেলার কালীকচ্ছ গ্রামের নূর হোসেনের ছেলে ইমন। গেল বছরের ১১ ডিসেম্বর জেলার সরাইল বিশ্বরোড থেকে নাসিরনগরে আসার জন্য ইমনের সিএনজিচালিত অটোরিক্সায় উঠেন সৈয়দ সাজ্জাদ র্মোশেদ সোহান। সোহান প্রয়াত সংসদ সদস্য মুর্শেদ কামালের ছেলে। নাসিরনগর আসার পর সিএনজি থেকে নেমে কিছুক্ষণ পর দেখেন পঞ্চাশ হাজার টাকার একটি ক্যাশ চেক ও তার দুটি পাসপোর্ট পাওয়া যাচ্ছেনা।। অনেক খোঁজাখুঁজার পর চেক ও পাসপোর্ট না পেয়ে তাঁর বর্তমান কর্মস্থল ঢাকায় চলে যান। ঢাকায় গিয়ে রমনা থানায় পাসপোর্ট ও চেক হারানোর একটি সাধারণ ডায়রি করেন।

এরই মধ্যে চলে গেছে পনের দিন। সোহান নতুন পানপোর্ট করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। হঠাৎই এবছরের ৪ জানুয়ারি সকালে একটি ফোন আসে সোহানের কাছে। ফোনেই জানতে পারেন তাঁর হারানো চেক ও পাসপোর্ট একজন সিএনজিচালিত অটোরিক্সা চালক তার হারানো জিনিসগুলো পেয়েছে। শনিবার সকালে নাসিরনগর অটো টেম্পু পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদকের উপস্থিতিতে চালক ইমনকে ফুলেল সংবর্ধনা দেয়া হয় এবং হারিয়ে যাওয়া জিনিসগুলো ফেরত দেয়া হয়।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares