Main Menu

নাসিরনগরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, পুলিশ ও নারীসহ আহত ৫০

+100%-

নাসিরনগর প্রতিনিধি::  জেলার নাসিরনগরে শরীরে পানি ছিটানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় পুলিশসহ পঞ্চাশ জন আহত হয়। এর মধ্যে দুজনকে আশংকাজনক অবস্থায় জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ১৩ আগষ্ট বিকেল চারটার সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার বুড়িশ্বর ইউনিয়নের শ্রীঘর গ্রামে। সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে সালাউদ্দিন(৫৫) নামে এক পুলিশ কনস্টেবল আহত হয়। যার ব্যাচ নম্বর ৫৪৮।

পুলিশ ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, শ্রীঘর গ্রামের দুই শিশু পরস্পরের মধ্যে পানি ছিটানোর ঘটনাকে কেন্দ্র করে বড় হাটি ও সারংবাড়ির লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী শিরো মিয়া সমকালকে বলেন, শ্রীঘর গ্রামের বড় হাটির জাদন মিয়ার ছেলে আজাদ মিয়া ও সারংবাড়ির মোতালিব মিয়ার ছেলে হৃদয় মিয়া পুকুরে গোসল করতে যায়। পরে এক অপরকে পানি ছিটানোকে কেন্দ্র করে হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে এর উত্তেজনা বড়দের মধ্যে ছড়িয়ে পরে।

পরে দুই গোষ্ঠীর লোকজন দেশিয় অস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় সংঘর্ষে পুলিশসহ পঞ্চাশজন আহত হয়। এদের মধ্যে মোরছালিন ও আয়েশা আক্তারকে আশংকাজনক অবস্থায় জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। উভয় পক্ষের আহতদের মধ্যে রয়েছে আলমগীর(৩০) স্বপন মিয়া(৬) মির্জা আলী(৪০) ছায়েদুল(২৬) আমীর আলী(২৬) তাজু মিয়া(৩৫) মোশারফ(৩০) নূরআলম(২২) সিরাজ মিয়া(৬৫) শহিদুল(২৮) আকিদুল(২৫) সাদিয়া(১৭) রজব আলী(৪০) আরিফ(৩০) আসাদ(৩০) জলিল (৩৮) এমদাদ(৩৫) দুলাল(২৮) হাফিজ(২২) মঞ্জু মিয়া(৩২) ডালিম(৩২) আজাদ(১৮) বিল্লাল(২৫) আসমত আলী(৬৬) শাহিন(৩০) আনিস(৩০) প্রমুখ।

বুড়িশ্বর ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক সরকার বলেন, পুকুরে গোসল করতে গিয়ে বাচ্চাদের মধ্যে পানি ছিটানোকে কেন্দ্র করে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে এ সংঘর্ষের সৃষ্টি।

নাসিরনগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) সাজেদুর রহমান জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares