Main Menu

নাসিরনগরে অনুষ্ঠিত হল স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন

+100%-

এম.ডি.মুরাদ মৃধা, নাসিরনগর প্রতিনিধি :নাসিরনগরে বিভিন্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়েছে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৭। বৃহস্পতিবার ২৯ মার্চ  সকাল ৯টা থেকে বিভিন্ন বিদ্যালয়গুলোতে শুরু হয় নির্বাচন।

প্রতিটি বিদ্যালয়েই শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকেই পুলিং এজেন্ট, প্রিজাইডিং অফিসার, পুলিশ,আনসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেয়া হয়। শিক্ষার্থীরা সবাই নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী তাদের কেবিনেটকে ভোট দিয়ে নিজেদের প্রতিনিধি নির্বাচিত করেন।

এদিকে নির্বাচন উপলক্ষে প্রতিটি বিদ্যালয়ে সকাল থেকেই শিক্ষার্থীদের সাথে তাদের অভিভাবকরাও উপস্থিত হন নির্বাচন দেখতে। এছাড়াও বিভিন্ন বিদ্যালয়ের বাইরে দেখা যায় উৎসুক জনতাকে ভীড় করে নির্বাচন দেখতে।

নাসিরনগরে মোট ২১ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। যার মধ্যে ১৭টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৫ টি মাদ্রাসা। ২১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মোট মনোনয়ন বিতরন করা হয় ৩৫৬টি। মনোনয়ন জমা পরে ৩৪৭টি। মনোনয়ন বাতিল ও প্রত্যাহার করা হয় ৪৪টি। চুড়ান্ত এবং বৈধ প্রার্থীর সংখ্যা ৩০৩ জন।

সকালে আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী কামরুন নাহার,মৌরিন চৌধুরীর সাথে কথা বলে জানা যায়, নির্বাচন খুব সুন্দর এবং সুষ্ট হচ্ছে।  তারা জাতীয় নির্বাচনে ভোট দিতে না পারলেও এখানে ভোট দিতে পেরে আনন্দিত।
প্রার্থীর অভিভাবক  শাহেদা আক্তার জানান, মূলত ছাত্রছাত্রীদের ছোটবেলা থেকেই এভাবে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া সম্পর্কে সচেতন করার এ উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়। সরকারের এ ধরনের উদ্যোগ শিক্ষার্থীদের নিজেদের ভোটাধিকার ও ভোট নিজের প্রতিনিধি নির্বাচিত করার জন্য কতটা প্রয়োজন তা শেখায়। সরকারের এ  উদ্যোগের প্রশংসা করেন শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা।
এদিকে নির্বাচনের জন্য প্রতিটি বিদ্যালয়ে শিক্ষকরা ব্যালট বাক্স, বুথ, নির্বাচনে ব্যবহৃত হাতের কালিসহ বিভিন্ন নির্বাচন ব্যবস্থা গ্রহণ করেন।  ভোটগ্রহণ শেষে প্রতিটি বিদ্যালয়েই নির্বাচিতদের নাম ও ভোটসংখ্যা জানিয়ে দেয়া হয়।
এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো: মাকসুদুর রহমান বলেন, গণতন্ত্রের চর্চা ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া, নেতৃত্বগুণ সৃষ্টি, বিদ্যালয়ের শিখন-শিখানো কার্যক্রমে শিক্ষকদের সহযোগিতা করা, বিদ্যালয়ে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ উন্নত করার ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের ভূমিকা রাখতে এই স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন। অনাগত ভবিষ্যৎ একটি সুন্দর আগামীর পথে আছে। যার সকল অবদান বর্তমান সরকারের সঠিকও সময় উপযোগী চিন্তা।
যারা নির্বাচন করছেন তাদের মেয়াদ হবে এক বছর। নির্বাচিত প্রতিনিধিরা বিদ্যালয়ের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতাসহ পরিবেশ সংরক্ষণ, পুস্তক ও শিখন সামগ্রী, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি, পানিসম্পদ, বৃক্ষ রোপণ ও বাগান তৈরি, অভ্যর্থনা ও আপ্যায়নসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে ভূমিকা রাখবে। নির্বাচিত প্রতিনিধিরা নিজেদের মধ্যে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে চাহিদার ভিত্তিতে সাংবাৎসরিক কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করবে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares