Main Menu

মামলা নিতে গড়িমসি, ৭২ ঘন্টার আলটিমেটাম

সাংবাদিক সম্মেলনে এমপি অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধার অভিযোগ

+100%-

মোহাম্মদ মাসুদ, সরাইল ॥ অর্ধশতাধিক পুলিশের উপস্হিতিতে প্রকাশ্যে ৪-৫টি গাড়ির মাঝখানে গিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের এমপি অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধার গাড়িটি ভাংচুর করেছে একদল সন্ত্রাসী। এ সময় আহত হয়েছে ৫ জন। গত বৃহস্পতিবার জেলা শহরের পৌর মিলনায়তনে ইফতারের শুরুতেই এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলা নিতে গড়িমসি করছে সদর মডেল থানা পুলিশ।

এমপি সাংবাদিক সম্মেলনে উপরোল্লেখিত অভিযোগ করে আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যে দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে সড়কপথ নৌপথ অবরোধ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। সাংবাদিক সম্মেলনে এমপি বলেন, গণতান্ত্রিক দেশে প্রত্যেক দলেরই মিটিং মিছিল ও সমাবেশসহ কর্মসূচি পালনের অধিকার রয়েছে। অথচ পূর্ব থেকেই ওই মাহফিলে হামলার একটা গুঞ্জন ছিল। ইফতারের পূর্ব মূহুর্তে দোয়ার পরই একদল দুস্কৃতকারী হঠাৎ হামলা চালিয়ে ৫টি গাড়ির মাঝখানে রাখা আমার গাড়িটি ভেঙ্গে চুরমার করে। পরে তারা মাহফিলে হামলা চালিয়ে নারকীয় তান্ডব চালিয়ে চেয়ার টেবিল ভাংচুর আমার প্রাণনাশের চেষ্টা করে।

জাপা থেকে দুইবার বহিস্কৃত ওবায়দুল হক ওহাবের কাঁধে ভর করে জেলা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতাদের মদদে এ তান্ডব চালানো হয়েছে। এর আগেও একই কায়দায় জাপার অফিস ভাংচুর করা হয়েছে। ব্রাক্ষণবাড়িয়া ছিল রাজনীতি চর্চার এক তীর্থস্থান। দলে দলে ছিল সহাবস্থান ও সম্প্রীতি।

গতকাল শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলনকে ঘিরে সকাল ৮টা থেকে বিশ্বরোড ও হোটেল লালশালুকে শতাধিক পুলিশ অবস্থান নেয়। এরা কি আমাকেই গ্রেপ্তার করার চেষ্টা করছে কিনা বুঝতে পারছি না। ঘটনার ১৯ ঘন্টা পরও জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করছে না। আবার মামলা নিতে ও গড়িমসি করছে পুলিশ। এ ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের ভূমিকা রহস্যঘেরা। তারা হয়েছে বিতর্কিত। কারণ গাড়ি ভাংচুরের সময় পুলিশ ছিল একেবারেই নিস্ক্রীয়।

এমপি বলেন, আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যে আসামী গ্রেপ্তার না হলে সদর থানার ওসিকে অপসারণ করতে হবে। পুলিশ প্রশাসনের বিষয়ে আমি মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি। এমপি ৩ দিনের সময় দিয়ে বলেন, আমরা মৃত্যুকে মেনে নিয়েই রাজনীতি করছি। সরকার ষড়যন্ত্রকারী, সন্ত্রাসী, দুস্কৃতকারী ও তাদের মদদদাতাদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নিলে আমরা সড়কপথ নৌপথ অবরোধ ও মানববন্ধন কর্মসূচি দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জাতীয়পাটির চেয়ারম্যানের যুববিষয়ক উপদেষ্টা রেজাউল ইসলাম ভ’ইয়া, সরাইল উপজেলা জাতীয়পার্টির সদস্য সচিব হুমায়ুন কবির, আশুগঞ্জ উপজেলার সদস্য সচিব মেরাজুল হক সিকদার, যুগ্ন-সদস্য সচিব এমদাদুল সালেহ, চেয়ারম্যন শরাফত আলী ও মোশারফ হুসেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares