Main Menu

সরাইল-অরুয়াইল সড়ক পরিদর্শনে এমপি ও জেলা প্রশাসক ::মানসম্মত কাজ ও সড়ক রক্ষার নির্দেশ

+100%-

মোহাম্মদ মাসুদ, সরাইল থেকে ॥ সরাইল-অরুয়াইল সড়ক আকস্মিক সরেজমিন পরির্দশন করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট জিয়াউল হক মৃধা ও জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান। গতকাল শনিবার দুপুরে তারা বেহাল ওই সড়ক পরিদর্শন শেষে এলাকার লোকজনকে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন।

ভূঁইশ্বরের পরের অংশকে বর্ষার মৌসুমে টিকিয়ে রাখার জন্য ২ কোটির ও অধিক টাকার কাজ চলছে। তবে কাজের মান ও ধরন নিয়ে চরম অসন্তুষ্ট সেখানকার বাসিন্ধারা। ক্ষোভে তারা মাঝে মধ্যে ঠিকাদারের কাজও বন্ধ করে দেন। এ ছাড়া ওই সড়কটির অবস্থা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুকে) ব্যাপক লেখালেখি হয়। সরকারের সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্র্তৃপক্ষের নজরে আসে। আর এ জন্যই গতকাল দুপুরে আকস্মিক ভাবে স্থানীয় এমপি ও জেলা প্রশাসক ওই সড়কে হাজির হন। তাদের আগমনের খবর শুনে মূহুর্তের মধ্যে সেখানে ভুক্তভোগী কয়েকশ লোক জড়ো হয়ে যায়। সুযোগে পাকশিমুল ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, অরুয়াইল ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া, আ’লীগ সভাপতি আবু তালেব, কুতুব উদ্দিন ভূঁইয়া, সাবেক ইউপি সদস্য কানু মিয়া ও মোঃ শাহবাজ মিয়া সহ এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, বর্তমানে কাজ বন্ধ। তবে অত্যন্ত নিম্নমানের কাজ হচ্ছে। বালির সাথে সিমেন্ট না দিয়েই ইচ্ছেমত বস্তা রাখা হচ্ছে। বস্তা রেখে পেছন ফেরার আগেই বস্তা পানিতে মিশে যাচ্ছে। এ ভাবে সড়ক টিকিয়ে রাখা যাবে না। জেলা এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী রায়হান সিদ্দিক বলেন, ২ কোটির অধিক টাকায় বর্ষার হাত থেকে সড়কটি রক্ষার উদ্যেশ্যে ৮ বস্তা বালুর সাথে ১ বস্তা সিমেন্ট মিশিয়ে তারপর বালু ভর্তি করে বস্তা গুলো রাখা হচ্ছে। কাজে অনিয়ম হবে কেন? দিনের বেলায় কাজ হচ্ছে এখানে লুকুচুরির কিছু নেই।
জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান বলেন, সড়কটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কোন ভাবেই যেন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন না হয়। কাজের মান উন্নয়ন করে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সাধারন লোকদের নিয়ে সড়কটিকে অবশ্যই রক্ষা করুন।
এমপি জিয়াউল হক মৃধা বলেন, অনেক কষ্টের এ সড়কে যেনতেন ভাবে কাজ করতে দেয়া হবে না। মানসম্মত স্থায়ী কাজ করুন। নইলে জনগন রাস্তায় নেমে আপনাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ মিছিল করতে বাধ্য হবে। আমি সকল প্রকার সহযোগীতা করব। তবে কাজে ফাঁকি না দিয়ে সড়কটি টিকিয়ে রাখার ব্যবস্থা নিন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares