Main Menu

সরাইলে যুবলীগ ও পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, যুবলীগ কর্মী গুলিবিদ্ধ, আহত ১০(ভিডিওসহ)

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে যুবলীগ ও পুলিশের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার কালিকচ্ছ বাজারে এ ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, গত ৩১ অক্টোবর কালিকচ্ছ ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু শাহাদাত মৃধা রাসেলকে ৫ পিছ ইয়াবাসহ আটক করে পুলিশ। পরে ভ্রাম্যমান আদালত তাকে ৬ মাসের সাজা প্রদান করে। এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে ওই মামলায় জামিনে মুক্তি পান রাসেল। সে এলাকায় পৌছুলে কর্মী সমর্থকরা তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে। সমাবেশ চলাকালে সরাইল থানা পুলিশ সমাবেশকে ছত্রভঙ্গ করতে গেলে দু পক্ষের মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। এতে ১০ জন আহত হন।

এ বিষয়ে রাসেলের বাবা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি, মুক্তিযোদ্ধা আবু মুছা মৃধা অভিযোগ করে বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে সেখানে বক্তব্য রাখছিলাম। পুলিশ অতর্কিত আমাদের উপর হামলা করে। জাতির জনক ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি সম্বলিত ব্যানার নিয়ে ছিড়ে ফেলে । এ সময় পুলিশ বাবু নামে এক যুবলীগ নেতাকে পায়ে বন্দুক ঠেকিয়ে পুলি করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। বাবু পার্শ্ববর্তী নোয়াগাঁও ইউনিয়নের হাজী মালি হোসেনের ছেলে। গুলি করার পর বাবুকে সঙ্গে করে নিয়ে যায় পুলিশ। পরে ব্যন্ডেজ করে আবার পুলিশই বাড়িতে দিয়ে যায় বলে জানান মুছা।

এ ব্যাপারে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, জামিনের শর্ত ভঙ্গ করায় আমরা তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিব। এদিকে, এ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় নিজাম নামে এক পুলিশ কন্সটেবল আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেলেও তা ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন ওসি।

 






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares