Main Menu

সরাইলে মামলায় আসামী ৬ শতাধিক। জামাতের আমীর সহ ৭ নেতা কর্মী গ্রেপ্তার

+100%-

মোহাম্মদ মাসুদ, সরাইল ॥ সরাইলে অতিসম্প্রতি ২টি মামলা দায়ের হয়েছে। একটি শাহবাজপুরে ও অপরটি অরুয়াইলে। বিএনপি’র নেতা কর্মীরা বলছে এ গুলো গায়েবী মামলা। মামলা ২টিতে নামীয় অজ্ঞাতনামা মিলিয়ে আসামী ৬ শতাধিক। এরই ধারাবাহিকতায় উপজেলা জামাতের আমীর মাওলানা কুতুব উদ্দিন (৪৫) সহ ও ৭ নেতা কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত রবিবার দিবাগত গভীর রাতে অভিযান চালিয়ে সদর ইউনিয়ন সহ অন্যান্য এলাকা থেকেও বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানায়, রোববার গভীর রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরশহরের কাজীপাড়ার ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে সদর মডেল থানার পুলিশ সরাইল উপজেলা জামাতের আমীর মাওলানা কুতুব উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে। তিনি সরাইল সদর ইউনিয়েনের পূর্ব কুট্রাপাড়া গ্রামের মাওলানা মোহাম্মদ আলীর ছেলে। এ ছাড়া একই গ্রামের সফর আলী (৪৮), ছোটদেওয়ান পাড়ার বাসিন্ধা জামাত নেতা মো. মুখলেছুর রহমান মোল্লা (৪৮), উমর (৫৫), শাহবাজপুর গ্রামের ফখরুল আলম (১৯), মোক্তাদির ছবির (৩২) ও অরুয়াইলের মো. মুখলেছুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ উপজেলা জামাতের সাধারণ সম্পাদক মো. এনাম খা ও ছাত্র শিবিরের সভাপতি মো. মামুনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের পায়নি। গ্রেপ্তারকৃতদের বিশেষ ক্ষমতা ও বিস্ফোরক আইন-২০১৬ এর ধারায় আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। আদালত তাদের জামিন না মজ্ঞুর করে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন। জামাতের আমীর সহ ৭ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তারের খবরে সরাইল বিএনপি’র নেতাকর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। অনেকেই এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে গেছেন। আবার কেউ কেউ গা ঢাকা দিয়েছেন।

স্থানীয় বিএনপি’র একাধিক নেতা বলছেন, গায়েবী মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার করে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে বিএনপি’র নেতা কর্মীদের মাঠ থেকে সরিয়ে দেওয়ার এটি একটি নীলনকশা। প্রসঙ্গত: গত ১৫ সেপ্টেম্বর শাহবাজপুর এলাকায় পুলিশ এস্যলের অভিযোগে এস আই মিজানুর রহমান বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। এ মামলায় ৫৪ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা আসামী ১২০ জন। সম্প্রতি অরুয়াইল পুলিশ ফাঁড়ির এস আই মো. জাকির হোসেন বাদী হয়ে বিস্ফারক আইনে আরেক মামলা করেছেন। ওই মামলায় ও অজ্ঞাতনামা ৫ শতাধিক লোককে আসামী করা হয়েছে।
সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশৃঙ্খল পরিবেশ তৈরী করে নাশকতা সৃষ্টি করে আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর পরিকল্পনা করাকালে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares