Main Menu

বিএনএফ কার্যালয়ে হামলা,চেয়ার-টেবিল ভাংচুর, এক কর্মীকে পিটুনি

+100%-

প্রতিবেদক : সরকারি স্কুলে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদি ফ্রন্ট (বিএনএফ) এর রাজনৈতিক কার্যক্রম পরিচালনার অভিযোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল স্কুলের সুপারিনটেনডেন্টর কার্যালয়ে হামলা করে চেয়ার-টেবিল ভাংচুর ও এক বিএনএফ কর্মীকে মারধর করেছে বিএনপির কর্মীরা।

সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে শহরের পুরাতন কাঁচারি সংলগ্ন ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল স্কুলে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এর আগে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আজাদ ছাল্লাল সংগঠনটির কার্যক্রম বিষয়ে তদন্ত করতে ওই স্কুলের দ্বিতীয় তলায় যান। তিনি তদন্তকাজ শেষ করে চলে যাওয়ার পরপরই জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক খোকনের নেতৃত্বে একদল নেতাকর্মী সেখানে আসেন। তারা ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল স্কুলের সুপারিনটেনডেন্ট চমন সিকান্দার জুলকারনাইনকে গালাগাল করতে করতে তার কক্ষে ঢুকেন। এসময় তারা ওই কক্ষের চেয়ার টেবিল ভাংচুর করেন। তারা দো’তলা থেকে বিএনএফ কার্যালয়ের ব্যানারটি নামিয়ে এনে রাস্তায় নিয়ে আগুন দেওয়ার চেষ্টা করে। এসময় ইন্ড্রাস্ট্রিয়াল স্কুল গেইটের সামনে এক বিএনএফ কর্মীকে পেয়ে তারা মারধর করে।

এদিকে স্কুলের সুপারিনটেনডেন্ট চমন সিকান্দার জুলকারনাইন তার কার্যালয়ে হামলার জন্য জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি, সাধারণ সম্পাদক জহিরুল খোকন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শামীম মোল্লা ও সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন মাহমুদকে দায়ি করেন।

তিনি বলেন, আমি বিএনপিকে পছন্দ করিনা। আমি আওয়ামী লীগ করি এবং এমপির লোক বলে তারা এ হামলা চালিয়েছে। বিএনএফের সাথে আমার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। বিএনএফের লোকজন দো’তলা ভাড়া নিয়ে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করছিল।

এদিকে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জহিরুল হক খোকন বলেন, চমন সিকান্দারই বিএনএফের মূল হোতা। সে এই সরকারি স্কুলে এই দলের কার্যালয় বানিয়ে বিএনএফের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। সময়ে সময়ে ব্যানার লাগাচ্ছে আবার খুলছে। আমরা তাকে বারবার এ তৎপরতা থেকে বিরত থাকার জন্য বলেছি। কিন্তু সে আমাদের কথা শুনেনি। সাধারণ লোকজন বিক্ষুব্ধ হয়েই তার এখানে হামলা করেছে।

বিএনএফ কার্যক্রমের তদন্ত বিষয়ে জানার জন্য অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আজাদ ছাল্লালের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি মুঠোফোনে এ বিষয়ে কথা বলবেন না বলে জানান।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রব জানান, এ ব্যাপারে মামলা হচ্ছে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares