Main Menu

নির্বাচন সমাচার : দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া

+100%-

 

প্রতিবেদক ॥ আগামী দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে দেশবাসীর মধ্যে সংশয় উৎকণ্ঠা থাকলেও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৬টি আসনে গণসংযোগে নেমে পড়েছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। কর্মীসভা, গণসংযোগ, উঠান বৈঠক, জনসমাবেশের মাধ্যমে প্রার্থীরা তাদের পক্ষে জনমত সৃষ্টি করার চেষ্টা করছেন। মাঠে ময়দানে আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা বর্তমান সরকারের ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ডের সাফল্য তুলে ধরে চলমান উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত রাখতে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও আওয়ামীলীগকে বিজয়ী করার আহবান জানাচ্ছেন। অপরদিকে প্রধান বিরোধী দল বিএনপির প্রার্থীরা বর্তমান সরকারকে ব্যর্থ ও দুর্নীতিবাজ আখ্যায়িত করে আগামী নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটকে বিজয়ী করার আহবান জানাচ্ছেন। জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা আগামীতে একক ভাবে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়ে ইতিমধ্যেই মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন।

বিগত নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৬টি আসনে চারদলীয় জোটের প্রার্থীদের পরাজিত করে মহাজোটের প্রার্থীরা জয়লাভ করেন। নির্বাচনে ৪টি আসনে আওয়ামী লীগ, ১টি আসনে জাতীয় পার্টি ও ১টি আসনে জাসদ (ইনু) প্রার্থী জয়লাভ করেন। বিজয়ী প্রার্থীরা হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া -১ (নাসিরনগর) আসনে অ্যাডঃ সায়েদুল হক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া -২- (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে জাপা প্রার্থী অ্যাডঃ জিয়াউল হক মৃধা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া -৩- (সদর) আসনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী অ্যাডঃ লুৎফুল হাই সাচ্চু, ব্রাহ্মণবাড়িয়া -৪- (কসবা- আখাউড়া) আসনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী আলহাজ্ব অ্যাডঃ শাহআলম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫- (নবীনগর) আসনে জাসদ (ইনু) প্রার্থী অ্যাডঃ শাহ জিকরুল আহমেদ খোকন ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া -৬- (বাঞ্ছারামপুর) আসনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী ক্যাপ্টেন (অবঃ) এ বি তাজুল ইসলাম।

গত ২০১০ সালের ২২ নভেম্বর সদর আসনের সংসদ সদস্য ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অ্যাডঃ লুৎফুল হাই সাচ্চু আকস্মিকভাবে মৃত্যু বরণ করলে সদর আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বিজয়ী হন।

এদিকে আগামী দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে একক নির্বাচনের ঘোষণা দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৬টি আসনের মধ্যে ৫টি আসনে একক প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে জাতীয় পার্টি। ঘোষিত প্রার্থীরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া -২- আসনে বর্তমান এম.পি অ্যাডঃ জিয়াউল হক মৃধা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩- আসনে অ্যাডঃ রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪- আসনে আলহাজ্ব সেলিম মাস্টার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫- আসনে কাজী মামুনুর রশীদ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া -৬- আসনে অ্যাডঃ আমজাদ হোসেন।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে জেলার ৬টি আসনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে গণসংযোগে মাঠে নেমেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১ (নাসিরনগর) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অ্যাডঃ সায়েদুল হক, বিএনপি’র নির্বাহী কমিটির প্রবাসী কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ও উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি একে একরামুজ্জামান, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি (বিজিপি) নেতা ও উপজেলা চেয়ারম্যান আহসানুল হক মাস্টার।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২- (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনে বর্তমান এম.পি ও জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডঃ জিয়াউল হক মৃধা, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা উকিল আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া, জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মেজর (অবঃ) জহিরুল হক খান বীর প্রতীক, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি মঈন উদ্দিন মঈন, প্রয়াত ইকবাল আজাদের স্ত্রী শিউলী আজাদ, আশুগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান, ধানমন্ডি আওয়ামীলীগের সভাপতি কামাল আহমেদ, সরাইল উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি অ্যাডঃ আব্দুর রহমান, ড. আজিজ আহম্মেদ, ইসলামি ঐক্যজোটের সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত মুফতি ফজলুল হক আমিনীর পুত্র হাফেজ আবুল হাসানাত আমিনী, মাওঃ জুনায়েদ আল হাবিব।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ (সদর) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী, বিএনপির নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান, জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডঃ হারুন আল রশীদ, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি ও সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামল, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডঃ রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, ইসলামী আন্দোলনের জেলা সেক্রেটারী মাওলানা গাজী নিয়াজুল করীম।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া -৪- (কসবা-আখাউড়া) বর্তমান সংসদ সদস্য ও পাবর্ত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও কসবা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব অ্যাডঃ শাহ আলম, বিএনপি’র চেয়ারর্পাসনের উপদেষ্টা ও সাবেক সংসদ সদস্য মুশফিকুর রহমান, জেলা বিএনপির সহ সভাপতি নাসির উদ্দিন হাজারী, বিএনপি নেতা মামুনুর রশীদ মোহন, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি জাহাঙ্গীর মোঃ আদেল, জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব সেলিম মাষ্টার।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫- (নবীনগর) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও জাসদ (ইনু) নেতা অ্যাডঃ শাহ জিকরুল আহম্মেদ খোকন, সাবেক এম.পি ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কাজী আনোয়ার হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা ফয়েজুর রহমান বাদল, এবাদুল করিম বুলবুল, ব্যারিষ্টার জাকির আহম্মেদ, বিএনপি’র নির্বাহী কমিটির সদস্য তকদির হোসেন জসিম, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় শিল্প বিষয়ক সম্পাদক কাজী মামুনুর রশীদ, কেন্দ্রীয় জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক মোবারক হোসেন দুলু।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ (বাঞ্ছারামপুর) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ক্যাপ্টেন (অবঃ) এবি তাজুল ইসলাম, বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য এমএ খালেক, বিএনপির নির্বাহী সদস্য রফিক সিকদার, উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মেজর (অব.) সাঈদ পিএসসি, জেলা জাতীয় পার্টির সহ সভাপতি অ্যাডঃ আমজাদ হোসেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares