Main Menu

আদম বেপারী থেকে টাকা ফেরত পেতে আমরণ অনশন শুরু

+100%-

প্রতিবেদক ॥ বাড়ি-ঘর, জমি-জিরাত বিক্রি করে আর্থিক সচ্ছলতা ফিরে আনতে আনিসুর রহমান সুদুর বাহরাইনে পাড়ি জমান। ১০-১৫দিন সেখানে ভালই কেটেছিল। এরপরই স্বপ্ন ভঙ্গ। কয়েক দিনের মধ্যেই বাহরাইনের সাইন বোর্ড সর্বস্ব এক প্রতিষ্ঠানে ভিসা পরিবর্তন করিয়ে নেয় আদম বেপারীর লোকজন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের উত্তর মৌড়াইলের মৃত নাদিরুজ্জামানের পুত্র আনিসু রহমান চলতি বছরের ২৫ জানুয়ারী সকল সম্পত্তি বিক্রি করে কম্পিউটার টেকনেশিয়ান পদে পুনিয়াউট মহল্লার শাহজাহান খানের মাধ্যমে ৫ ল টাকা খরচ করে বাহরাইনে যায়। সেখানে ১৫ দিনের মধ্যেই শাহজাহান খানের পুত্র আব্বাস আলী খান তারেকের নানামুখী অত্যাচার শুরু হয়। আনিসুর রহমান অভিযোগ করেন, বাহরাইনে আব্বাস আলী তার বাসায় অফিস স্থাপন করে বিভিন্ন কোম্পানীর রাবার ষ্ট্যাম্প জালিয়াতি, স্বার জাল করা, গলাকাটা মেডিকেল ফিট কার্ডসহ বিভিন্ন অপরাধ ও প্রতারণামূলক কাজ করে থাকে। একাজে তাকে বাধ্য করা হয়। প্রতিবাদ করায় তার উপর নির্যাতন চালানো হয়। ভিসা বাতিল করে দেশে পাঠিয়ে দেয়া ও বেতন স্থগিত করে দেয়। অন্যত্র কাজ করার চেষ্টা করলে ভয় দেখানো হয়। জাল-জালিয়াতির কারনে আব্বাস আলী চলতি বছরের ১৩ মার্চ আটক হয়। পরে আদালতের মাধ্যমে মুক্ত হয়। কিন্তু আনিসুর রহমান এ ধরনের কাজ না করায় গত ১৬ আগস্ট  দেশে চলে আসে। এরপর চুক্তি ভঙ্গ অভিযোগ করে টাকা ফেরতের দাবী করলে আদম বেপারী শাহজাহান খান নানা ভাবে হয়রানি করে। সর্বশেষ ৩ সেপ্টেম্বর সদর থানায় একটি জিডি করে আনিসুর রহমান। শাহজাহান খানের ব্যবসায়ী শহরের সুপার মার্কেটে স্বপ্না কথ ষ্টোরে গতকাল শনিবার সকালে গেলে তার উপর শাহজাহান নির্মম নির্যাতন চালায়। তাকে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। উপায় না দেখে শনিবার সকাল থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসকাবের সামনে আমরণ অনশন শুরু করে আনিসুর রহমান। এ ব্যাপারে আদম বেপারী শাহজাহান খান জানান, এ ঘটনায় আমি জড়িত নয়। সে বাহরাইনে গিয়ে প্রতারিত হয়ে এসেছে। এটা আমার বিষয় নই।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares