Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মিড ডে মিল কর্মসূচীতে ইউএনও জান্নাতুল ফেরদৌস

সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিনত করতে নিরলসভাবে কাজ করছে

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জান্নাতুল ফেরদৌস বলেছেন, বর্তমান সরকার শিক্ষা বান্ধব সরকার। শিক্ষার উন্নয়নে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে। বছরের প্রথম দিন  সরকার শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে নতুন বই তুলে দিচ্ছে। দেশের প্রতিটি স্কুলে নতুন ভবন নির্মান, পুরানো ভবন সংস্কার, মাল্টিমিডিয়া ক্লাশরুম প্রতিষ্ঠাসহ শিক্ষা উপকরন দিয়ে সরকার শিক্ষার অনুকুল পরিবেশ সৃষ্টি করছে।

আজ ১৬ আগস্ট বুধবার দুপুরে পৌর এলাকার উত্তর পৈরতলার দাড়িয়াপুর শহীদ কাশেম আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মিড ডে মিল কর্মসূচীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও শহর আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজী মোঃ মুসলিম মিয়ার সভাপতিত্বে ও বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ মনির হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জান্নাতুল ফেরদৌস আরো বলেন, সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিনত করতে নিরলসভাবে কাজ করছে। সেজন্য প্রত্যেক শিশুকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত  ও যোগ্য হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। সুস্থ দেহ ও সুস্থ মনের সমন্বয়েই স্বাস্থ্যবান ও শিক্ষিত প্রজন্ম গড়ে তোলা সম্ভব। তিনি বলেন, শিশুর প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষালাভের সূতিকাগার হচ্ছে প্রাথমিক বিদ্যালয়। পড়াশোনার পাশাপাশি শিশুর মন ও দেহের যেন সুষ্ঠু বিকাশ ঘটে সেদিকে লক্ষ্য রাখাও বিদ্যালয়ের দায়িত্ব। প্রতিটি শিশুকে তার মেধার বিকাশ ঘটিয়ে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এই লক্ষ্যে সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলোতে মিড ডে মিল চালু করেছে।

তিনি বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা দুপুর ১২টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত বিদ্যালয়ে থাকে। দীর্ঘক্ষণ না খাওয়ার কারনে তারা পড়াশোনায় মন দিতে পারে না। এতে তাদের শারীরিক ও মানসিক বিকাশে ব্যাঘাত ঘটে। অনেক শিক্ষার্থী মধ্যাহ্ন বিরতিতে বাড়ি গিয়ে আর বিদ্যালয়ে ফিরে আসে না। ফলে প্রাথমিক শিক্ষায় কাঙ্খিত লক্ষ্য অর্জন করা সম্ভব হচ্ছেনা। তিনি বলেন, স্কুলে শিক্ষার্থীদের শতভাগ উপস্থিতি ও শিক্ষার্থীদের ঝড়েপড়ারোধে মিড ডে মিল গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রাখে। তিনি শ্রেণীকক্ষে শিক্ষার্থীদেরকে ভালোভাবে পড়ানোর জন্য শিক্ষকদের প্রতি আহবান জানান।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা শিক্ষা অফিসার আবদুস সামাদ আকন্দ, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি ও জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য সোহরাব মিয়া, ফারজানা দিদার হীরা, বিদ্যালয়ের ভূমিদাতার ছেলে রবিউল আলম ফুল মিয়া ও আলী মিয়া প্রমুখ।

আলোচনা সভা শেষে প্রধান অতিথি উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে দেওয়া টিফিন বক্সের মধ্যে প্রত্যেক শিশুর হাতে ভেজিটেবল রোল তুলে দেন।

 






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares