Main Menu

সনাক ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর উদ্যোগে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষাসেবার মান উন্নয়নে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

+100%-

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এর অনুপ্রেরণায় গঠিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর উদ্যোগে ২৩ অক্টোবর ২০১৮ তারিখ মঙ্গলবার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা সেবার মান উন্নয়নে করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার বণিক এবং স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন সনাক সদস্য প্রকৌশলী আশরাফ উদ্দিন আহম্মেদ।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন সনাক সভাপতি জেসমিন খানম, সহকারি জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা লিটন দাস, সহকারি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল হাসনাৎ মোঃ জহিরুল ইসলাম, নন্দনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব জহিরুল ইসলাম, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি জনাব ইয়াকুব আলী এবং সনাক এর ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যবৃন্দ।
মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার বণিক মতবিনিময় সভা আয়োজনের জন্য সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং বিদ্যালয়ের শিক্ষা সেবার মান উন্নয়নের জন্য শিক্ষকবৃন্দকে আন্তরিক হওয়ার জন্য আহ্বান জানান।
সভায় সনাক সভাপতি জনাব জেসমিন খানম বলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার ক্ষেত্রে ইতিবাচক পরিবর্তন হয়েছে এবং শিক্ষাসেবার মান বৃদ্ধির জন্য শিক্ষকবৃন্দ ও কর্মকর্তাবৃন্দকে নিজ নিজ অবস্থান হতে দায়িত্ব পালনের জন্য আহ্বান জানান।
মতবিনিময় সভায় নন্দনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা ক্ষেত্রে অগ্রগতি আলোচনায় বলা হয় গুনগত মান বৃদ্ধি পেলেও ছাত্র ছাত্রীরা সমাপনী পরীক্ষায় ভাল ফলাফল অর্জন করতে পারছেনা। উক্ত বিষয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার বণিক প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় কমপক্ষে ০৫ জন শিক্ষার্থী সর্বোচ্চ ফলাফল অর্জন করতে হবে মর্মে প্রধান শিক্ষককে নির্দেশ প্রদান করেন। নন্দনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার লাল বালুর পরিবর্তে সাদা বালু ব্যবহার করছে, উক্ত বিষয়ে লিখিতভাবে বিষয়টি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়ে অবহিত করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করেন। এসএমসি সভায় নারী সদস্যদের অংশগ্রহণ বৃদ্ধি, সহকারি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার বিদ্যালয় পরিদর্শন ও শিক্ষকবৃন্দের আগমন ও প্রস্থান বিষয় মনিটরিং করা, অভিভাবকদের সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য উঠান বৈঠক আয়োজনের জন্য জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্তৃপক্ষ কর্তৃক নির্দেশনা প্রদান করা হয়। তাছাড়া জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আগামি ২০১৯ সালের জানুয়ারী মাসে সদর উপজেলার সকল বিদ্যালয়ে সক্রিয় মা দল গঠণের প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।
মতবিনিময় সভায় সনাকের পক্ষ হতে প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়ন এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধির জন্য বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটি কে সক্রিয় করা, নিয়মিত মা সমাবেশ আয়োজনের মাধ্যমে অভিভাবকবৃন্দের সচেতনতা বৃদ্ধি ও বিদ্যালয়ের কার্যক্রমে অভিভাবকদের অংশগ্রহণ বৃদ্ধি এবং শিক্ষকবৃন্দের নিয়মিত বাড়ি পরিদর্শনের জন্য সুপারিশ উত্থাপন করা হয়।প্রেস রিলিজ






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares