Main Menu

সংস্কৃতির ক্ষেত্রে নতুন নতুন সৃষ্টির জন্য আমরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দিকে তাকিয়ে থাকবো::জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান

+100%-

আশা করি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংস্কৃতির ক্ষেত্রে আরও গৌরবের পথে অগ্রসর হবে এবং যে শক্তি আমাদের পেছনে টেনে রাখতে যেতে চায় সে শক্তির বিরুদ্ধে বিজয় লাভ করবে

জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান বলেছেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় জন্ম নেয়া সুর সম্রাট উস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ ও আয়াত আলী খাঁ’র মতো গুণীজনরা সংস্কৃতিকে সমৃদ্ধ করেছে। সংস্কৃতির ক্ষেত্রে নতুন নতুন সৃষ্টির জন্য আমরা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দিকে তাকিয়ে থাকবো। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংস্কৃতির গৌরবদীপ্ত পীঠস্থান। এ এলাকা বিশ্ববিখ্যাত মানুষদের জন্ম দিয়েছে।

তিনি রোববার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের সুর সম্রাট উস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তনে ঢাকাস্থ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সমিতি আয়োজিত গুণীজন সম্মাননা ও শিক্ষা বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন। প্রফেসর আনিসুজ্জামান আরো বলেন, আশা করি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংস্কৃতির ক্ষেত্রে আরও গৌরবের পথে অগ্রসর হবে এবং দেশে যে শক্তি আমাদের পেছনে টেনে রাখতে যেতে চায় সে শক্তির বিরুদ্ধে বিজয় লাভ করবে।

ঢাকাস্থ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সমিতির সভাপতি,পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি,বীর মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপির সভাপতিত্বে ও জেলা সমিতির যুগ্ম-সম্পাদক মঈনউদ্দিন মঈনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ ছিলেন অতিথি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের সাবেক মহাপরিচালক গ্রেড-১) ফাহিমা খাতুন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক হায়াত উদ দৌলা খান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার মেয়র নায়ার কবির ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার। অনুষ্ঠানে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নয় গুণীজনকে সম্মানা প্রদান করা হয়।

সম্মাননা প্রাপ্তরা হলেন বরেন্য বংশীবাদক ওস্তাদ আজিজুল ইসলাম,নাট্যজন আলী যাকের, সারা যাকের,সুরকার শেখ সাদী খান,সঙ্গীতজ্ঞ মতিউল হক খান, সমাজকর্মী অ্যারোমা দত্ত,চলচ্চিত্রকার মোর্শেদুল ইসলাম,সচিব মো. মোশাররফ হোসেন ও কবি মারুফুল ইসলাম। এছাড়াও জেলার নয় উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ২শ’ জন গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীকে শিক্ষা বৃত্তি দেয়া হয়।

আলোচনা শেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের পরিচালক সাংবাদিক মো.মনির হোসেন এর সঞ্চালনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয় তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের শিল্পিদের পরিবেশনায় কবি সৈয়দ শামসুল হকের আমার পরিচয় কবিতার বৃন্দ আবৃত্তির মধ্য দিয়ে। এসময় সঙ্গীত পরিবেশন করেন কন্ঠশিল্পি মিতালী বিশ্বাস,ফারুক আহমেদ পারুল,নবনীতা রায় বর্মণ ও অমিতা দেবনাথ। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ বক্তব্য প্রদান করেন ঢাকাস্থ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবদুন নূর।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares