Main Menu

মহান মে দিবসের আলোচনা সভা

শ্রমিকদের কল্যাণে সরকার কাজ করছে:: মোকতাদির চৌধুরী এমপি

+100%-

শ্রমিকদের ন্যায্য মজুরি সহ আটঘন্টা কাজের নিশ্চয়তার দাবিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মহান মে দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষ্যে গত সোমবার সকাল ৯টায় শহরের লোকনাথ উদ্যান (টেংকের পাড়) থেকে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষ করে সুর স¤্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তনে এসে শেষ হয়। এতে লাল পতাকা নিয়ে বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মী ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালিটি নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান, পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান পিপিএম (রাব), জেলা আওয়মাীলীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, পৌর ভারপ্রাপ্ত প্যানেল মেয়র আলহাজ্ব ফেরদৌস মিয়া।

পরে ব্রাহ্মণবাড়িয়াস্থ সুর স¤্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনাতনে অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় প্রধান অথিতির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য, বিশিষ্ট লেখক, মুক্তিযোদ্ধা, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিও সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি। জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অথিতির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান পিপিএম (বার), জেলা আওয়মী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, পৌর মেয়র আলহাজ্ব ফেরদৌস মিয়া প্রমুখ। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ফিরোজা পারভীনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়মীলীগের সহ সভাপতি মুজিবুর রহমান বাবুল, জেলা জাসদ সভাপতি আ্যড. আখতার হোসেন সাঈদ, জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কাজী মাসুদ আহমেদ, সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ্ব আবু হোরায়রাহ্, বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস কোম্পানরী লি. এর সিবিএ সভাপতি এস এম তৌফিক বেলাল, জেলা নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি শেখ আলাউদ্দিন আলাল, জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আসিছুর রহমান প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতি মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেন, শ্রমিকদের কল্যাণে কর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সরকার শ্রমিকদের ন্যায্য দাবির প্রতি সম্মান রেখে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। আমাদের সরকারের নীতি হল শ্রমজীবি মানুষের সঠিক মূল্য দেওয়া এবং তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করা। তিনি এ সময় আরো বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শ্রমজীবি মানুষের কল্যাণে একটি শ্রমকল্যাণ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা কারর সর্বাত্মক চেষ্ঠা করব। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares