Main Menu

শিশু রাসেলের হত্যার মতো নির্মম ঘটনা আমাদের গোটা জাতিকে অপরাধী করে দেয়:: মোকতাদির চৌধুরী এমপি

+100%-
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ট পুত্র শেখ রাসেলের ৫৪ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আলোচনা সভা,সাংস্কৃতিক পরিবেশনা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে জেলা প্রশাসন ও শিশু একাডেমির অায়োজনে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি।
এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোকতাদির চৌধুরি এমপি বলেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনিরা শেখ রাসেলকে হত্যা করে বঙ্গবন্ধুর রক্তের উত্তরাধিকার নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল। কিন্তু তাদের অপচেষ্টা শতভাগ ব্যর্থ হয়েছে। শহীদ শেখ রাসেল আজ বাংলাদেশের শিশু-কিশোর, তরুণ, শুভবুদ্ধিবোধ সম্পন্ন মানুষদের কাছে ভালোবাসার নাম।
মোকতাদির চৌধুরী আরো বলেন আমি শেখ রাসেল কে খুব কাছ থেকে দেখেছি,শিশুরা নিষ্পাপ, ফুলের মতো পবিত্র। শেখ রাসেলকে হত্যার সময় সে ছিল শিশু। কিন্তু সেই ঘাতকের রোষাণল থেকে রেহাই পায়নি। শিশু হত্যার মতো এই নির্মম ঘটনা আমাদের গোটা জাতিকে অপরাধী করে দেয়।
তিনি বলেন, আজ শেখ রাসেল বেঁচে থাকলে একজন পূর্ণাঙ্গ মানুষ হিসেবে দেশ ও জাতির অন্যতম কৃতী সন্তান হতে পারতেন।
অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক হায়াত উদ দৌলা খানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুন,পুলিশ সুপার মো:অানোয়ার হোসেন খান বিপিএম পিপিএম, পৌরসভার মেয়র নায়ার কবির,জেলা অাওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আল মামুন সরকার,ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ডা.মো আবু সাঈদ।
অনুষ্ঠানে বিভিন্নশ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।পরে বিভিন্ন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরন করা হয়।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares