Main Menu

মেড্ডায় বকেয়া ভাড়া চাওয়ায় মালিককে ফাঁস দিয়ে হত্যা করলো ভাড়াটিয়া

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বকেয়া ভাড়া নিয়ে বিতন্ডার জেরে ভাড়াটিয়ার হাতে বাড়ির মালিক খুন হয়েছে। শনিবার শহরের মধ্য মেড্ডা উচাবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যায় ভাড়াটিয়া আমিনের ঘরের খাটের নীচ থেকে হত্যার শিকার শিরিনা বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে পরিবারের লোকজন। নিহত শিরিনা (৬০) ওই এলাকার মোঃ সবুজ আলীর স্ত্রী।

এ ঘটনায় এলাকাজুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ঘাতক আমিন পার্শবর্তী এলাকা রহমত পাড়ার মৃত হীরা মিয়ার ছেলে।

পরিবারের লোকজন জানায়, রহমত পাড়ার আমিন (২৫) তার স্ত্রী নিয়ে ৫/৬ মাস আগে মেড্ডা উচাবাড়ি এলাকায় সবুজ আলীর বাড়িতে ঘর ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন। সকালে সবুজ আলীর স্ত্রী শিরিনা বেগম ঘরের ভাড়া আনতে আমিনের ঘরে যান। এর পর থেকে শিরিনা বেগমের আর কোন সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে ভাড়াটিয়া ঘর তালাবদ্ধ করে বাইরে ঘুরাফেরা করতে থাকে। বিষয়টি পরিবারের লোকজনের কাছে সন্দেহ হলে সন্ধ্যায় আমিনের ঘরে ঢুকে শিরিনা বেগমের কথা জানতে চাইলে তার মরদেহ খাটের নীচে রয়েছে বলে জানায়। এ সময় পরিবারের লোকজন মরদেহ উদ্ধার করে এবং আমিনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের কাছে তুলে দেয়।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়াসদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) সোহরাব আল হোসাইন জানান, শিরিনাকে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে ঘাতক আমিনকে আটক করেছে। বকেয়া ভাড়া নিয়েই এ হত্যাকান্ড সংগঠিত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানাগেছে। ঘটনাটির তদন্ত চলছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।