Main Menu

মহান স্বাধীনতা দিবস জাতির অহংকার — উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি

+100%-

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য, বিশিষ্ট লেখক, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেছেন, মহান স্বাধীনতা দিবস জাতির অহংকার।
তিনি ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তনে সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসন আয়োজিত আলোচনা সভা, পুরস্কার বিতরণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মোকতাদির চৌধুরী এমপি আরো বলেন, আমরা আজ স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশে বসবাস করছি। দীর্ঘদিন আমরা গোলামির জিঞ্জিরে আবদ্ধ ছিলাম। তখন আমাদেরকে বিভিন্ন ভাবে নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে। ১৯৭১ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে সারা দিয়ে দেশের মানুষ স্বাধীনতার জন্য ঐক্যবব্ধ হয়ে হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে মাত্র ৯ মাসে আমাদের এ মাতৃভূমিকে স্বাধীন করেছেন এদেশের বীর জনগণ। তিনি বলেন, এক সাগর রক্তের বিনিময়ে এদেশ স্বাধীন করেছি। আমরা দেশকে ভালোবেসে যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করি। আমি একজন যুদ্ধা হিসেবে বলতে চাই ‘আমরা যদি ধর্ম, বর্ণ, গোত্র ও নানা মতবাদ ভুলে গিয়ে শুধু দেশের স্বার্থে এককাতারে মিলিত হতে পারি, তাহলেই সূচিত হবে নতুন বাংলাদেশের।’ এ সময় তিনি দেশে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে মুক্তিযোদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে প্রকৃত দেশপ্রেমে উদ্ধুদ্ধ হয়ে সবাইকে কাজ করার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান পিপিএম (বার), ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার মেয়র নায়ার কবির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এ এস এম শফিকুল্লাহ্, ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি এডঃ কাজী মাসুদ আহমেদ, জাসদ সভাপতি এডঃ আখতার হোসেন সাঈদ, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মজিবুর রহমান বাবুল, সাংবাদিক মনজুরুল আলম, বীর মুক্তিযোদ্ধা ওয়াছেল ছিদ্দিকী প্রমুখ। আলোচনা শেষে জেলা প্রশাসন আয়োজিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ। পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares