Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলায় পূর্ব বিরোধের জেরে বাড়ি ঘর ভাঙচুর ও লুটপাট

+100%-

পূর্ববিরোধের জের ধরে শনিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় বাড়ি-ঘর ভাঙচুর ও লুটপাট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সকালে সদর উপজেলার বাসুদেব ইউনিয়নের দুবলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নারীসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, দুবলা গ্রামের আবদুল আওয়াল শাহ্ মাজার নিয়ে সাবেক ইউপি সদস্য আবদুল্লাহ্ আল মামুনের সাথে একই গ্রামের রাহাত মিয়ার বিরোধ চলছিল। সম্প্রতি মাজারের ওরসে গান-বাজনা করতে নিষেধ করায় মামুনের সাথে রাহাতের বাক-বিতণ্ডা হয়। এ নিয়ে গত ২৫ মে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে জামাল মিয়া নামে মামুনের এক সমর্থক নিহত হন। এ ঘটনায় সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলাও দায়ের করা হয়। মামলা দায়েরের পর থেকেই অনেকটা পুরুষ শূন্য হয়ে পড়ে দুবলা গ্রাম। এছাড়া স্থানীয় দুবলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের নির্বাচন নিয়েও মামুন ও রাহাত সমর্থকদের মধ্যে বিরোধ চলছিল।

এসব বিরোধের জের ধরেই শনিবার সকাল ৭টা থেকে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী মামুনের সমর্থকরা রাহাত সমর্থকদের ঘর-বাড়িতে অতর্কিতভাবে হামলা চালিয়ে প্রতিপক্ষের অন্তত ১৫-২০টি ঘর-বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাট চালায় বলে ক্ষতিগ্রস্তরা জানিয়েছে।

এ ঘটনায় নারীসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নবীর হোসেন বলেন, ভাঙচুরের খবর পেয়ে দুবলা গ্রামে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares