Main Menu

সংসদ সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের শোক প্রকাশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পশ্চিম এলাকার বিশিষ্ট সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী আবু তাহের মাস্টারের ইন্তেকাল

+100%-

সদর উপজেলার নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়নের নরসিংসার গ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিত্ব আবু তাহের মাস্টার ৮২ বছর বয়সে গতকাল শুক্রবার সকালে আকস্মিকভাবে হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে জেলা সদর হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন (ইন্নালিল্লাহি … রাজিউন)। বাদ আসর নরসিংসার স্কুল ও কলেজ মাঠে জানাজা শেষে তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। জানাজায় অসংখ্য ধর্মপ্রাণ মুসল্লি ও এলাকাবাসী অংশগ্রহণ করেন।
মৃত্যুকালে স্ত্রী, পুত্র, কন্যাসহ আত্মীয় স্জন ও অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও ব্রাহ্মবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি, সাবেক প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব হারুন অর রশিদ, সাবেক উপমন্ত্রী আলহাজ্ব এড. হুমায়ুন কবির, পৌরসভার মেয়র নায়ার কবির, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাহজাহান মিয়া (মিঞা ভাই), আলহাজ্ব সৈয়দ এমরানুর রেজা, ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল আলম, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ হোসেন, আব্দুল কাইয়ুম ও করদ আলম এবং নরসিংসার স্কুল ও কলেজ ব্যবস্থাপনা কমিটি এবং শিক্ষক ও শিক্ষার্থীসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী গভীর শোক প্রকাশ করে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনাসহ শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।
উল্লেখ্য যে, প্রয়াত আবু তাহের চা বাগান কর্মকর্তা হিসেবে চাকরী থেকে অবসরগ্রহণ করে হোমিও চিকিৎসা, শিক্ষকতা ও সামাজিক উন্নয়নে জড়িত থেকে অবসর সময় কাটিয়েছেন। ৬০ এর দশকে কলেজে অধ্যয়নকালে তিনি তৎকালীন মহকুমা পর্যায়ে দাড়িয়া বাধা ও গোল্লাছটু খেলা প্রতিযোগিতায় তিনি মহকুমায় একাধিকবার চ্যাম্পিয়ান হয়েছিলেন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি হবিগঞ্জের লালচান্দ চা বাগান এলাকায় মুক্তিযুদ্ধের একজন সংগঠন হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে পাকিস্তানী সেনাবাহিনীর কাছে আটক ও অমানসিক নির্যাতনের স্বীকার হয়েছিল।

উল্লেখ্য যে, মরহুম আবু তাহের জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকারের ভগ্নিপতি।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares