Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশ সুপারের ইজতেমাস্হল পরিদর্শন

+100%-

বিশ্ব এজতেমা একাংশ ৪/৫/৬ ইং জানুয়ারি শালগাঁও কালিসীমা চৌদ্দ মোজা মাঠে ইজতেমা অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে। অদ্য ০৪/১/২০১৮ তারিখ বেলা ১১:৪৫ মিনিটে জনাব মো: মিজানুর রহমান পিপিএম বার (অতিরিক্ত ডিআইজি) পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া মহোদয় উক্ত অনুষ্ঠানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন করেন। এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও ইজতেমায় উপস্থিত মুসল্লিগনের সাথে কুশল বিনিময় করেন।

এছাড়া তিনি ইজতেমা মাঠে স্বাধীন বাংলা চক্ষু হাসপাতালের উদ্যোগে বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা সেবা উদ্বোধন করেন। এসময় ইজতেমা মাঠে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল),অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (সদর দপ্তর),সহকারি পুলিশ সুপার (কসবা সার্কেল ) ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

আগামীকাল ০৫/১/২০১৮ তারিখ রোজ শুক্রবার বেলা ১২:৩০ ঘটিকায় জনাব মো: মিজানুর রহমান পিপিএম বার (অতিরিক্ত ডিআইজি) পুলিশ সুপার মহোদয় ইজতেমা মাঠে জুম্মার নামাজ আদায় করবেন। ইজতেমা ময়দানকে পাঁচটি সেক্টরে ভাগ করে জল ও স্থলপথে নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তার দায়িত্বে ৫৭৫ জন পুলিশ সদস্য নিয়োজিত থাকবে। ইজতেমা ময়দান পাশে থাকবে অবজারভেশন পোস্ট। রাতে এ পোস্টগুলোতে নাইটভিশন বাইনোকুলার ব্যবহার করা হবে । ইজতেমার অতিরিক্ত নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা হিসেবে আমর্ড পুলিশ, র‌্যাব, নৌ পুলিশ ও ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করছে। মুসল্লিদের জরুরি চিকিৎসাসেবা প্রদানের জন্য অ্যাম্বুলেন্সসহ মেডিকেল টিম ইজতেমা মাঠে নিয়োাজিত আছে। ইজতেমা এলাকার আশপাশে ছিনতাই, পকেটমার, মলমপার্টি এবং বিভিন্ন দুর্ঘটনা এড়াতে পোশাকে ও সাদা পোশাকে বিভিন্ন বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছে। ইজতেমায় কোন কিছু হারানো বা পাওয়া গেলে জেলা পুলিশের “হারানো প্রাপ্তি সহায়তা সেল” এর মাধ্যমে সেবা প্রদান করা হচ্ছে।প্রেস রিলিজ






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares