Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত একজন , আটকের অভিযোগ পরিবারের

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুলতানপুর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে কাউসার ভূঁইয়া (৪৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পুলিশ বলছে, তিনি মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। তবে পরিবার বলছে, গতকাল শনিবার পুলিশ কাউসারকে  আটক করে নিয়ে যান।

আজ রোববার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। কাউসার ভূঁইয়ার বাড়ি শহরের কান্দিপাড়া এলাকায়। পুলিশ বলছে, তাঁর বিরুদ্ধে মাদক আইনে কয়েকটি মামলা রয়েছে।

নিহতের স্ত্রী রিনা বেগম জানান, ২ দিন আগে পুলিশের সোর্স মোড়াইলের বাসিন্দা মুস্তাকিম তার স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা আছে বলে ৫ হাজার টাকা দাবী করে। তাদের পক্ষ থেকে ৫ হাজার টাকাও পরিশোধ করা হয়। শনিবার বিকেলে বাড়ির সামনে থেকে সাদা পোশাকধারীরা তাকে ধরে নিয়ে যায়। পরে সদর থানা যোগাযোগ করলে পুলিশ জানায় এ নামে কাউকে আনা হয় নি। তারা ডিবি অফিস ও র‌্যাবের সাথে যোগযোগ করেও তার সন্ধান পায় নি। রীনা বেগমের দাবি, কাউসার মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন না। তিনি মাদক সেবন করতেন। তবে তাঁর বিরুদ্ধে থানায় কয়েকটি মামলা রয়েছে বলে তিনি জানান।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া গনমাধ্যমকে জানান, গতকাল গভীর রাতে ডিবি পুলিশের একটি টহল দল সদর উপজেলার ভাতশালা এলাকায় সন্দেহজনক গাড়িকে থামতে বলে। এ সময় গাড়িতে থাকা মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী কাউসার আহত হন। সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর তাঁকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরও বলেন, গাড়িতে থাকা অন্য মাদক ব্যবসায়ীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, শটগানের কার্তুজের দুটি খোসা ও ১৯৮টি ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়।পরিবারের করা অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ওসি মো. মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, এই অভিযোগ সত্য না।

 

 






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares