Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দের অংশগ্রহণে “স্বাস্থ্য খাতে সেবার মান উন্নয়ন ও সুশাসন নিশ্চিতকরণ” শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

+100%-

ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) ও সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) ব্রাহ্মণবাড়িয়া এর আয়োজনে ১১ অক্টোবর ২০১৮ তারিখ বৃহস্পতিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে সাংবাদিকবৃন্দের অংশগ্রহণে “স্বাস্থ্য খাতে সেবার মান উন্নয়ন ও সুশাসন নিশ্চিতকরণ” শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন সনাক সভাপতি জেসমিন খানম। মতবিনিময় সভায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ শওকত হোসেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব সভাপতি খ.আ.ম রশিদুল ইসলাম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী। মতবিনিময় সভায় স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন সনাক সহ সভাপতি প্রকৌশলী মোঃ রফিকুল ইসলাম।
অতিথির বক্তব্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক বলেন সভায় সাংবাদিকগণ তৃতীয় চক্ষু হিসেবে স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নে যে সমস্ত পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন তা গুরুত্ববহ এবং সেগুলো সমাধানে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তিনি হাসপাতালে দালাল মুক্ত করতে দালালদের পৃষ্টপোষকদের খুঁজে বের করার জন্য অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করার জন্য সাংবাদিকবৃন্দদের প্রতি আহ্বান জানান এবং স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নের জন্য সকলকে নিজ নিজ অবস্থান হতে জনসাধারারণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্ঠির উপর গুরুত্বারোপ করেন।
প্রেস ক্লাব সভাপতি খ.আ.ম রশিদুল ইসলাম বলেন স্বাস্থ্য সেবার মান উন্নয়নের জন্য ডাক্তারবৃন্দের দৃষ্ঠিভঙ্গির পরিবর্তন হতে হবে। ডাক্তারবৃন্দের পেশায় সেবার মানসিকতা প্রতিফলন ঘটাতে হবে।
প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী বলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ব্যাপকহারে বেসরকারি ক্লিনিকের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং যখন একজন ডাক্তার একাধিক ক্লিনিকে চিকিৎসক হিসেবে নিয়োজিত থাকেন তখন চিকিৎসা সেবার মান নিয়ে প্রশ্ন থাকা স্বাভাবিক।
মতবিনমিয় সভায় উন্মুক্ত আলোচনায় উপস্থিত সাংবাদিকবৃন্দ হাসপাতালে ইউনানি কোম্পানিগুলোর দৌরাতœ, দালালদের তৎপরতা বৃদ্ধি, ডাক্তারবৃন্দের আগমন ও প্রস্তানের সময় না মেনে চলা, ডাক্তারদের অনুপস্থিতি, হাসপাতালের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের রোগীদের প্রতি খারাপ আচরন, হাসপাতালে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার অভাব, জরুরী বিভাগে রাতে সেবা না পাওয়া, বহির্বিভাগে চিকিৎসা সেবা চলাকালীন ঔষধ কোম্পানির প্রতিনিধিদের উপস্থিতি, ডাক্তারবৃন্দ কমিশনের বিনিময়ে অপ্রয়োজনীয় পরীক্ষা দেয়া এবং হাসপাতালের ঔষধ কাউন্টার হতে ভুল ঔষধ প্রদান বিষয়গুলো উত্থাপন করেন।

মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন সাংবাদিক আল আমিন শাহীন, জহির রায়হান, সৈয়দ মোহাম্মদ আকরাম, কাউসার এমরান, মোজাম্মেল চৌধুরী, উজ্জল চক্রবর্ত্তি, বিশ^জিৎ পাল, আল মামুন, মোঃ লুৎফর রহমান ভূইয়া, নিয়াজ মোহাম্মদ খান বিটু এবং শফিকুল আলম। সনাকের পক্ষ হতে বক্তব্য প্রদান করেন সনাক সদস্য নন্দিতা গুহ এবং ডাঃ মেসবাহ উদ্দিন চৌধুরী। মতবিনিময় সভা সঞ্চালনা করেন সনাক সদস্য মোহাম্মদ আরজু।প্রেস বিজ্ঞপ্তি






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares