Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এটিএন বাংলার ২১ বছর পূর্তি উদযাপন॥

+100%-

নিজস্ব প্রতিবেদক॥আনন্দ শোভাযাত্রা, কেক কাটা ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বাংলাদেশের প্রথম স্যাটেলাইট টেলিভিশন এটিএন বাংলার প্রতিষ্ঠাবার্ষীকি পালিত  হয়েছে। শনিবার  বেলা সাড়ে ১০টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও কেক কাটা হয়। পরে বর্নাঢ্য শোভাযাত্রা শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি খ আ ম রশিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর আসনের সংসদ সদস্য ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী। সংস্কৃতি কর্মী ও আবৃত্তিকার হাবিবুর রহমান পারভেজের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এটিএন বাংলার জেলা প্রতিনিধি ইসহাক সুমন।

আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক ড. রেজওয়ানুর রহমান, পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান পিপিএম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার, প্রেসক্লাবের সম্পাদক দীপক চৌধুরী বাপ্পী, বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম ভূঁইয়া, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদ এডভোকেট মাহবুবুল আলম খোকন, ব্রাহ্মবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আরজু, চ্যানেল আই এর প্রতিনিধি সাংবাদিক মনজরুল আলম, ব্রাহ্মবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন জামি,  মুক্তিযোদ্ধের গবেষক জয়দুল হোসেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত, আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান রেহানা বেগম, ব্রাহ্মণবাড়িয়া চেম্বার অব কমার্সে সহ-সভাপতি মোঃ শাহআলম। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সমকালের নিজস্ব প্রতিবেদক আব্দুর নূর, দৈনিক সংগ্রামের প্রতিনিধি সৈয়দ মোহাম্মদ আকরাম, দৈনিক মানবজমিনের  স্টাফ রিপোটার জাবেদ রহিম বিজন, এনটিভির স্টাফ করসপন্ডেন্ট শিহাব উদ্দিন বিপু, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিনিদিনের প্রতিনিধি মোশারফ হোসেন বেলাল, বাংলা ভিশনের প্রতিনিধি আশিকুর রহমান, সময় টেলিভিশনের বুরো প্রধান উজ্জল চক্রবতী, গাজী টিভির প্রতিনিধি জহির রায়হান, একাত্তর টিভির প্রতিনিধি জালাল উদ্দিন রুমী, আশুগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোজাম্মেল হক, যুমনা টিভির প্রতিনিধি শফিকুল ইসলাম, চ্যানেল নাইনের প্রতিনিধি আল মামুন, আরটিভির প্রতিনিধি আজিজুর রহমান পায়েল, প্রথম আলোর প্রতিনিধি সাহাদাত হোসেন, দৈনিক নবচেতনার প্রতিনিধি খন্দকার শফিকুল আলম, জাগো নিউজের প্রতিনিধি আজিজুর সঞ্চয়, নিউজ টুয়েন্টিফোরের প্রতিনিধি মাসুক হৃদয়, বাংলা নিউজের প্রতিনিধি পরশ, মাছরাঙ্গা টিভির প্রতিনিধি আশিকুর রহমান হিমেল, ডিবিসির প্রতিনিধি খন্দকার রায়হান, সাংবাদিক মোজ্জাম্মেল হক, ফরহাদুল ইসলাম পারভেজ, রিপন, তিতাস টেলিগ্রাফের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ শাহআলম, সাপ্তাহিক রূপালী ধারার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক কামরুজ্জামান রিপন, নিজস্ব প্রতিবেদক কাউছার উদ্দিন, আশুগঞ্জ নাগরিক সমাজের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আশুগঞ্জ শাখার সাধারন সম্পাদক বাকের আহমেদ খান, আশুগঞ্জ খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান, বন্দর যুবলীগের সভাপতি ইকরান আহমেদ রুমন প্রমুখ। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখে এটিএন বাংলার সাবেক দুই প্রতিনিধি আল-আমিন শাহীন ও পীযুষ কান্তি আচার্য।

আলোচনা সভা শেষে বর্নাঢ্য এক আনন্দ শোভাযাত্রা প্রেসক্লাব চত্বর থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। অনুষ্ঠানে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে মিডিয়ার অবাধ স্বাধীনতা দিয়েছে। সংবাদ কর্মীগন স্বাধীন বাবে তাদের কাজ করতে পারছেন। বস্তু নিষ্ঠতার সাথে সংবাদ পরিবশেনের মাধ্যমে এটিএন বাংলার এখন জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে। আশাকরি আগামীদিনে এটিএন বাংলা আরো এগিয়ে যাবে।   বিশেষ অতিথি সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী বলেন, সরকারে ভিশন টোয়েন্টি ওয়ান ও ডিজটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে। আর সেই লক্ষে মিডিয়ার গুরুত্ব অপরীশিম। আর সে লক্ষ্যকে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদের মাধ্যমে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে এটিএন বাংলা।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares