Main Menu

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট ঘোষনা

বর্তমান পৌর পরিষদ একটি বাস্তবমুখী বাজেট উপস্থাপন করেছে, এটি বাস্তবায়নে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন -র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি

+100%-


পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র. আ. ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি বলেছেন, ১৪৯ বছরের ঐতিহ্যবাহী ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা। দূর্ভাগ্য সময়ের দিক দিয়ে পৌরসভার যে উন্নয়ন অগ্রগতি হওয়ার কথা ছিল তা হয়নি। তিনি বলেন, বর্তমান পৌর পরিষদ একটি বাস্তবমুখী বাজেট উপস্থাপন করেছে। তাই আমি এই পরিষদের মেয়র নায়ার কবিরসহ পৌর পরিষদকে ধন্যবাদ জানাই। বিগত সময়গুলোতে যে কাল্পনিক বাজেট উপস্থাপন করা হতো, গত ৩ বছরের যে চিত্র আমরা দেখলাম তাতে দেখা যায়, সে সময়কার বাজেটগুলো বাস্তবায়িত হয়নি। পার্সেন্টিস এর দিক দিয়ে অর্ধেকেরও নিচে বাস্তবায়িত হয়েছে। তা অত্যন্ত দুঃখজনক। তাই আমি বর্তমান মেয়রের নিকট আহবান করেছিলাম আপনি একটি বাস্তবমুখী বাজেট উপস্থাপন করবেন। তিনি তাই করেছেন। আমি মনে করি প্রস্তাবিত বাজেটটি সঠিকভাবে বাস্তবায়িত হবে।
তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যেমন উন্নয়নের ধারায় এগিয়ে চলছে, সেই ধারায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার প্রথম নারী মেয়র নায়ার কবীরের নেতৃত্বে পৌর সভার উন্নয়ন অগ্রগতি সাধন করতে হবে। তিনি এ জন্য সকলকে আন্তরিক ভাবে ভূমিকা রাখার আহবান জানান। তিনি বলেন, বিভিন্ন সময়ে এই পৌর সভার উন্নয়নের জন্য যা করণীয় তা করেছি, এই পৌর সভার উন্নয়নের জন্য যা প্রয়োজন তা করবো। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার সন্নিকটে যে পুকুরটি রয়েছে সেই পুকুরের উপরে জলাশয় আইনকে উপেক্ষা করে একটি দু’তলা ভবন নির্মাণ করা হয়েছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক এবং বেআইনী। তিনি এর নিন্দা জানান। পরিবেশ ও জলাশয় রক্ষায় আমাদের সকলের আন্তরিকভাবে কাজ করা প্রয়োজন। আপনারা জানেন এই পৌরসভার সামনের অংশতে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার করার ঘোষণা দিয়েছি। আমি আশা করছি আগামী অল্প সময়ের মধ্যে একটি সুন্দর আধুনিক বঙ্গবন্ধু স্কয়ার স্থাপিত করতে আমরা সক্ষম হবো।
তিনি সম্মিলিতভাবে পৌর এলাকার উন্নয়নে সকলকে একযোগে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন।
গতকাল শনিবার সকালে শহরের সুর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেট অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
বাজেট অধিবেশনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর সভার প্রথম নারী মেয়র নায়ার কবির আনুষ্ঠানিকভাবে বাজেট ঘোষনা করেন। প্রস্তাবিত বাজেটে সম্ভাব্য আয় ধরা হয়েছে ৪১ কোটি ২৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা এবং সম্ভাব্য ব্যয় ৩৯ কোটি ৮ লাখ ৩০ হাজার টাকা। সমাপনী স্থিতি দেখানো হয়েছে ২ কোটি ১৫ লাখ টাকা। বাজেট ঘোষণার পর সভাপতির বক্তব্যে পৌর মেয়র প্রধান অতিথি সহ সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরকে একটি সুন্দর নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। তিনি বলেন দায়িত্ব নেয়ার পর পৌর সভার বর্জ অপসারণ, জলাবদ্ধতা, রাস্তা নির্মাণ ড্রেন কালভার্ট সড়ক বাতি ইত্যাদি ক্ষেত্রে সমস্যা সমাধানে কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। একটি সুন্দর পৌরসভা গঠনে প্রস্তাবিত বাজেট সহায়ক হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বাজেটকে জণগণের কল্যাণে সফল করার লক্ষে পৌরবাসীর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান, পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর মিজানুর রহমান পিপিএম (বার), জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পৌর চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।
অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন পৌরসভার সচিব সৈয়দ মোঃ আবুজর গিফরী। এ সময় মুক্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক ওয়াহেদুল হক ওহাব, ব্রাহ্মণবাড়িয়া চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি ও এফবিসিসিআই’র পরিচালক আলহাজ্ব আজিজুল হক, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মহসিন মিয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডঃ মাহবুবুল আলম খোকন, জেলা জাসদের সভাপতি এডঃ আখতার হোসেন সাঈদ, শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আবু হোরায়রাহ্। বাজেট অধিবেশেন পৌর কাউন্সিলরবৃন্দ, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, বীর মুক্তিযোদ্ধাবৃন্দ, বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিসহ বিভিন্ন স্তরের পৌর নাগরিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares