Main Menu

নাসিরনগরে ব্যাংক একাউন্ট খোলার নামে শিক্ষার্থীদের কাছে টাকা আদায়

+100%-

নিজস্ব প্রতিনিধি:: নাসিরনগর ডিগ্রী মহা বিদ্যালয়ের এইচএসসি ও ডিগ্রী শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা উত্তোলনের জন্য একাউন্ট খুলা বাবদ টাকা আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
এ জন্য শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে জনপ্রতি আদায় করা হয়েছে ৫০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত। তবে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক কর্তৃপক্ষ বলছে এসব একাউন্ট খুলতে কোন টাকা নেয়ার নিয়ম নেই। অথচ সংশ্লিষ্ট কলেজের প্রধান জানান, উপবৃত্তির অনলাইনের খরচ হিসেবে কিছু টাকা নিতে হচ্ছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার ডিগ্রী কলেজের শিক্ষার্থীরা এ প্রতিনিধিকে বলেন, উপবৃত্তির ব্যাংক একাউন্ট খোলার জন্য কলেজে যারা উপবৃত্তি পাবার জন্য মনোনিত হয়েছে প্রত্যেকের কাছ থেকে ৫০ টাকা করে আদায় করা হয়েছে। এর আগে ডিগ্রীতে অধ্যায়নরত ছাত্রীদের কাছ থেকে অনুরোপ ভাবে ৫০ টাকা করে আদায় করা হয়।

এদিকে ভুক্তভোগী এক অভিভাবক মোঃ বকুল চৌধুরী বলেন,অধ্যক্ষের নির্ধারিত উপবৃত্তির একাউন্ট খোলা বাবদ ফি পরিশোধ করলেও আমার ভাগ্নী এখনও টাকা পাচ্ছে না। তার বান্ধবীরা সবাই টাকা উত্তোলন করেছে।
নাসিরনগর ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আলমগীর হোসেন ছাত্রীদের কাছ থেকে এ টাকা আদায়ের কথা জানতে চাইলে তিনি স্বীকার করে বলেন, অতিরিক্ত টাকা না নিলে আমরা অনলাইনের কাজ করব কি ভাবে। তিনি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ মাকসুদুর রহমান,অভিভাবক প্রতিনিধি মোঃ আব্দুল বাকী,শিক্ষক প্রতিনিধি পার্থ প্রতীম সোমের উপস্থিতে বলেন অতিরিক্তি টাকা নেয়ার সরকারী বিধান আছে। পরে শিক্ষা অফিসার প্রতিবাদ করলেও তিনি নিজের অবস্থানে অনড় থাকেন। পরে শিক্ষক প্রতিনিধি প্রার্থ প্রতীম সোম জোরালো ভাবে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের বিষয়ে প্রতিবাদ করলে অধ্যক্ষ টাকা ফেরত দিতে সম্মত হন।

এ ব্যপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ মাকসুদুর রহমান বলেন,কিছুদিন আগেও ডিগ্রীতে অধ্যায়নরত ছাত্রীদের উপবৃত্তির একাউন্ট খোলার সময় ৫০ টাকা করে আদায় করেছিল। তখন আমি নিজে ফোন করে তা না নিতে নিষেধ করি। তিনি আরও বলেন, সরকারী ভাবে নিষেধ আছে উপবৃত্তির একাউন্ট বাবদ কোন টাকা আদায় করা যাবেনা। কিন্তু অধ্যক্ষ বলছেন টাকা নেয়ার নিয়ম আছে। এখন আমরা অফিসিয়াল ভাবে ব্যবস্থা নিব।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares