Main Menu

টাউন খাল পুনরুজ্জীবন কার্যক্রম শুরু, সাবধান! ময়লা ফেললেই আইনের আওতায়(ভিডিও)

+100%-

পানি প্রবাহ স্বাভাবিক রাখার লক্ষ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার টাউন খাল খনন ও আবর্জনা পরিষ্কারের কাজ শুরু হয়েছে। শনিবার সকাল ১০টায় ‘ক্লিন ব্রাহ্মণবাড়িয়া’ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে টাউন খাল পরিস্কার অভিযান শুরু হয়।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী প্রধান অতিথি থেকে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

এসময় তিনি বলেন, এ খালের সৌন্দর্য নষ্ট করতে একটি মহল সোচ্ছার ছিল। ভূমি দস্যুগণ মনে করেছিল এ খাল ভরাট করতে পারলে তারা লাভবান হবেন। কিন্তু তাদের স্বপ্ন পূরণ হবে না।

তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, আমি সরকারের উচ্চ পর্যায়ে আলোচনা করে এ খাল সংস্কার করবো। এ খাল আমাদের শহরের সৌন্দর্য্য। শহরের সৌন্দর্য্যরে স্বার্থে আমাদের কাজ করতে হবে। এ সময় তিনি আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের এ কাজে স্বেচ্ছাসেবক দেওয়ার আহবান জানিয়ে তিনি এ খাল পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য এক লাখ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি নায়ার কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মোকতাদির চৌধুরী আরো বলেন, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অতীব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ঘর-বাড়ি, রাস্তাঘাট, নালা-নর্দমা, স্কুল, বাজারঘাট, কলেজ, অফিস-আদালত এবং এর আশ-পাশের এলাকাসমূহ পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা রাখা অত্যস্ত জরুরি।

এ খালের সৌন্দর্য্য তথা পৌর এলাকার সৌন্দর্য্য রক্ষার্থে আপনারা নির্দিষ্ট স্থানে ময়লা আবর্জনা ফেলতে হবে। তিনি বলেন, এসব কাজ করতে পৌরসভাসহ সরকারের বিভিন্ন সংস্থা যেমনি কাজ করে তেমনি আপামর জনসাধারণেরও এব্যাপারে এগিয়ে আসা উচিত। মনে রাখতে হবে জনগণই এর প্রধান ভূক্তভোগী।

আপনার-আমার সচেতনতাই পারে নিকটস্থ এলাকাটি ময়লা-আর্বজনা ও জীবাণুমুক্ত রাখতে। আমরা নিজেরা যদি উদ্যোগী হয়ে নিজেদের ঘরের আশপাশসমূহ পরিস্কার করে রাখি তাহলে একদিকে যেমন জায়গাটি উজ্জ্বলতা ও প্রাণ ফিরে পাবে তেমনি নানান অসুখ বিসুখ থেকেও আমরা আমাদের পরিবার/সমাজকে মুক্ত রাখতে পারব। পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা একটি এলাকার মর্যাদা বাড়িয়ে দেয়।

তিনি আরো বলেন, সুন্দর পরিবেশেই সুস্থদেহ ও সুন্দর মন থাকে। সৃষ্টিকর্তাও পরিচ্ছন্ন আর পবিত্র ব্যক্তিকে ভালবাসেন। আসুন, আমরা সবাই নিজেদেরকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখি এবং নিজের শহরকে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে সবাইকে উদ্বুদ্ধ করি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান, পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমান (পিপিএম), জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক পৌর চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আল মামুন সরকার, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।

সাংবাদিক মোঃ আল আমিন শাহীন ও মোঃ মনির হোসেনের পরিচালনায় এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মুজিবুর রহমান বাবুল, হাজী মোঃ হেলাল উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক এডঃ মাহবুবুল আলম খোকন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাবিবুল্লাহ্ বাহার, সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এডঃ তাসলিমা সুলতানা খানম নিশাত, পৌরসভার প্যানেল মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মুরাদ খান, সহকারী পুলিশ সুপার (হেড কোয়াটার) আবু সাঈদ, সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) রেজাউল করিম, পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী নিকাশ চন্দ্র মিত্র, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আলহাজ্ব এডঃ লোকমান হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ আবু হোরায়রাহ্, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদ, রফিকুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওয়াহিদ খান লাভলু প্রমুখ।

আর এখন থেকে খালে ময়লা ফেললে আইনের আওতায় নিয়ে আসবে পুলিশ। জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রচলিত আইনেই পরিবেশ দূষণের দায়ে জেল জরিমানার বিধান রয়েছে ।

 






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares