Main Menu

আসামের বাংলা ভাষা আন্দোলনের শহীদদের শ্রদ্ধা জানিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ভাষা মিছিল-কবিতা-গান-আলোচনা

+100%-

ভাষার মিছিল,শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ অর্পণ আর আলোচনা,আবৃত্তি,গানের মধ্য দিয়ে ভারতের আসাম রাজ্যের শিলচরে ১৯৬১ সালের ১৯ মে বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষার আন্দোলনে প্রাণ-উৎসর্গকারী কমলা ভট্টাচার্য সহ ১১ বীর শহীদকে স্মরণ করা হয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়।

শুক্রবার ১৯ মে সকাল সোয়া ১০ টায় তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের আয়োজনে শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্বর থেকে ভাষার মিছিল শুরুর মধ্য দিয়ে কর্মসূচী শুরু হয়।

এরপর শহরের গভ.মডেল গার্লস হাই স্কুল শহীদ মিনারে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন কবি-শিল্পি-সাহিত্যিক ও বিশিষ্টজনেরা।

এসময় উদ্ধোধনী বক্তব্য দেনন গভ.মডেল গার্লস হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক নাঈমা জান্নাত।

সংগঠনের উপেদষ্টা এটিএম ফয়েজুল কবীরের সভাপতিত্বে ও সহকারী পরিচালক বাছির দুলালের পরিচালনায় আলোচনা করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মো.আরজু,সাবেক সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন জামি,তিতাস আবৃত্তি সংগঠন পরিচালক মো.মনির হোসেন,সাংবাদিক উজ্জল কুমার চক্রবর্তী,আবৃত্তিশিল্পি অমিতাভ চক্রবর্তী।

একক আবৃত্তি করেন নির্জয় হাসান সোহেল,সানজিয়া আফরিন,উত্তম কুমার দাস।

ভাষার সঙ্গীত পরিবেশন করেন নবনীতা রায় বর্মণ ও সোহাগ রায়।

স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন কবি অবনী অনিমেষ।

তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের ছোট ও বড় দলের ভাষা আন্দোলন সম্পর্কিত দুটি বৃন্দ আবৃত্তির মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।

তিতাস আবৃত্তি সংগঠন গত দু,বছর ধরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মহান ১৯ মে পালন করছে বলে জানালেন সংগঠনের সহকারী পরিচালক বাছির দুলাল। তিনি জানান,মহান একুশের ফেব্রুয়ারি যেমন আমাদের অহংকারদীপ্ত ভাষা আন্দোলন ১৯ মে ও আমাদের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার। আমরা একুশের পরের বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষার সংগ্রামের এই মহান ১৯ মে সম্পর্কে নতুন প্রজন্মকে জানাতে ও একুশ আর ১৯ মে চেতনায় বাংলা ভাষার বিকাশ ও শুদ্ধ চর্চার সংগ্রাম ছড়িয়ে দিতে এই উদ্যোগ অব্যাহত রাখবো।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares