Main Menu

আনন্দমুখর পরিবেশে চিনাইরে ১৭তম শিশু মেধাবৃত্তি পরীক্ষা ও মেলা অনুষ্ঠিত

+100%-

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সুনামধন্য গ্রাম চিনাইর-এ শিশু শিক্ষার্থীদের মেধাযাচাইয়ের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠিত চিনাইর শিশু মেধাবৃত্তি ফাউন্ডেশন এর ১৭তম শিশু মেধাবৃত্তি পরীক্ষা ও শিশু মেলা- ২০২১ আনন্দমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গতকাল ২৪ ডিসেম্বর শুক্রবার চিনাইর বঙ্গবন্ধু অনার্স কলেজের ৩টি ভবনে সকাল ১০টা হতে দুই শিফটে দুপুর সোয়া ১ টা পর্যন্ত পিনপতন নিরবতার মধ্যে আয়োজিত মেধাবৃত্তি পরীক্ষায় জেলার ৬৪টি সরকারী বেসরকারী প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রথম হতে পঞ্চম শ্রেণির মোট ১০৪২ জন শিশু শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়। তন্মধ্যে প্রথম শ্রেণির ১৬৯ জন, দ্বিতীয় শ্রেণির ১৭৭ জন, তৃতীয় শ্রেণির ১৮৬ জন, চতুর্থ শ্রেণির ২১৫ জন এবং পঞ্চম শ্রেণির ২৯৫ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। সকালে পরীক্ষা শুরু হওয়ার পর মেধাবৃত্তি ফাউন্ডেশন সভাপতি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক প্রফেসর ফাহিমা খাতুন কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শেখর কুমার রায় ও উপাধ্যক্ষ এ কে এম শিবলী সহযোগে পরীক্ষা কক্ষ পরিদর্শন করেন।

ফাহিমা খাতুন বলেন, প্রতিটি মানব শিশু অমিত সম্ভাবনা নিয়ে জন্মগ্রহণ করে। এই শিশুদের যদি উপযুক্ত পরিবেশে শিক্ষা দেয়া যায় তার মধ্যে লুকায়িত সুকুমার বৃত্তিগুলোর উন্মেষ ঘটে। তিনি বলেন, অনুকূল পরিবেশ ছাড়া মানব প্রতিভার যথার্থ বিকাশ সম্ভব নয়। এ কারণেই বিশ্বখ্যাত মনীষীগণ শিশুদের প্রতি মনোযোগী হতে উৎসাহ দিয়েছেন। আমাদের দেশে শিক্ষা ব্যবস্থার জটলা এখনো কাটেনি। প্রকৃত শিশুবান্ধব পরিবেশও এখানে নিশ্চিত করা কঠিন। এমন অপূর্ণতার মধ্যেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শিশুদের নিয়ে আমরা কিছু একটা করতে মনস্থির করি। বিগত ২০০৪ সালে চালু করি শিশু মেধাবৃত্তি পরীক্ষা ও শিশুমেলা। তখন পরিবেশটা আমাদের জন্যে অনুকূল ছিল না। কিন্তু এই কর্মসূচীর স্বপ্নদ্রষ্টা ব্রাহ্মণবাড়িয়াবাসীর প্রিয় মানুষ বীর মুক্তিযোদ্ধা র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী ছিলেন দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। তারই আন্তরিক পৃষ্ঠপোষকতায় সকল বাধা বিপত্তি উপেক্ষা করে আমরা প্রায় দেড় যুগ পার করতে পেরেছি। তিনি আরও বলেন, বর্তমানে চিনাইর শিশু মেধাবৃত্তি একটি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ লাভ করেছে। বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে এই শিক্ষা কর্মসূচীর কলেবর। আশা করি এর ফলে শিশুরা শিক্ষায় আরও উৎসাহিত হবে।

এই শিশু মেধাবৃত্তি উপলক্ষে গতকাল পরীক্ষা অঙ্গন জেলার বিভিন্ন এলাকা হতে আগত শিশু ছাত্রছাত্রী এবং অভিভাবকদের ভিড়ে মুখরিত হয়ে উঠে। বিশাল প্যান্ডেলে অভিভাবকদের বসা ও আপ্যায়নের ব্যবস্থা করা হয়।প্রেস বিজ্ঞপ্তি