Main Menu

ফেসবুক ব্যবহারে সারা পৃথিবীতে দু’নম্বরে ঢাকা

+100%-

পৃথিবীর যে সব শহরে ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি তার মধ্যে ঢাকা হচ্ছে দ্বিতীয় – এ কথা বলা হচ্ছে এক জরিপে ।

দুটি প্রতিষ্ঠানের যৌথভাবে চালানো এক বৈশ্বিক জরিপে একথা বলা হচ্ছে। জরিপটি চালিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘উই আর সোশাল’ আর কানাডাভিত্তিক ডিজিটাল সেবা প্রতিষ্ঠান হুটস্যুইট।

অনলাইনে প্রকাশিত এ বছরের এপ্রিল মাসের হিসেব অনুযায়ী, সবচেয়ে বেশিসংখ্যক সক্রিয় ফেসবুক ব্যবহারকারী আছেন ব্যাংকক শহরে, ৩ কোটি ।

এর পরই রয়েছে ঢাকা। এখানে সক্রিয় ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২২ মিলিয়ন বা ২ কোটি ২০ লাখ। তৃতীয় স্থানে আছে ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তা।


এ বছর জানুয়ারি মাসেও ঢাকার অবস্থান ছিল তৃতীয়। তখনও প্রথমে ছিল ব্যাংকক, সেখানে ফেসবুক ইউজারের সংখ্যা ছিল ২ কোটি ৪০ লাখ। দ্বিতীয় স্থানে ছিল মেক্সিকো সিটি, ১ কোটি ৯০ লাখ। আর তৃতীয় স্থানে ছিল ঢাকা, ১ কোটি ৬০ লাখ ফেসবুক ব্যবহারকারী নিয়ে।

দেশের দিক থেকে সবচেয়ে বেশি ফেনবুক ইউজার আছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে – মোট ২১ কোটি ৪০ লাখ। দ্বিতীয় স্থানে ভারত, ১৯ কোটি ১০ লাখ।

মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করেন ২৫০ কোটিরও বেশি লোক।
এই জরিপ অনুযায়ী, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি প্রবৃদ্ধি ঘটছে চীনে, সেখানে ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৩ কোটির বেশি – প্রবৃদ্ধির হার ২১ ভাগ ।

দ্বিতীয় স্থানে ভারত, সেখানে সাড়ে ৫ কোটি সোশাল মিডিয়া ব্যবহারকারী, প্রবৃদ্ধির হার ৪০ শতাংশ।

আট নম্বরে আছে বাংলাদেশ।

এখানে সোশাল মিডিয়া ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১ কোটি ১০ লাখ, এর প্রবৃদ্ধি ঘটছে ৭৩ শতাংশ হারে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় ফেসবুক – সক্রিয় ইউজার একাউন্ট ১৮০ কোটিরও বেশি। এর ৮৭ শতাংশই মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ফেসবুক ব্যবহার করেন।

মোবাইল ফোনে যারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করেন – এক্ষেত্রে প্রবৃদ্ধির তালিকাতেও বিশ্বে ১০ নম্বরে আছে বাংলাদেশ। জরিপ অনুযায়ী এটা এ বছরের জানুয়ারি মাসের হিসেব। বাংলাদেশে এই প্রবৃদ্ধি হচ্ছে ৬৯ শতাংশ হারে।
এর ৫৫ শতাংশই প্রতিদিন ফেসবুক ব্যবহার করেন। ব্যবহারকারীদের ৪৪ শতাংশ নারী, ৫৬ শতাংশ পুরুষ।

দ্বিতীয় স্থানে আছে ফেসবুক মেসেঞ্জার, হোয়াটসএ্যাপ, ইউটিউব একই কাতারে। যাদের সক্রিয় ইউজার একাউন্ট ১০০ কোটি করে।

একই জরিপে দেখা যাচ্ছে, দক্ষিণ এশিয়ায় জনসংখ্যার ইন্টারনেট ব্যবহারের ৭৮ শতাংশই মোবাইল সংযোগ নির্ভর। পূর্ব ইউরোপের বেলায় এ অনুপাত সবচেয়ে বেশি – ১৩৯ শতাংশ।

পৃথিবীর অর্ধেকেরও বেশি লোক এখন একটি শক্তিশালী মোবাইল ফোন সাথে নিয়ে চলে।

পৃথিবীতে প্রায় ২৭০ কোটির বেশি লোক সক্রিয়ভাবে সোশাল মিডিয়া ব্যবহার করে।






Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*

Shares